ডিসেম্বর ২৪, ২০১৫
Home » জাতীয় » পৌর নির্বাচনে দেশের ১১৮৪টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ

পৌর নির্বাচনে দেশের ১১৮৪টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ

এইবেলা, জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, ২৪ ডিসেম্বর::আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে ৩ হাজার ৪০৩টি কেন্দ্রের মধ্যে এক  হাজার ১৮৪ টি ঝুঁকিপূর্ণ বলে জানিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। নির্বাচন কমিশনে (ইসি) এই তালিকা পাঠিয়েছে মন্ত্রণালয়।

সূত্র জানায়,  ওই তালিকার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে রয়েছে খুলনা বিভাগ। শতকরা হিসাবে ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র ৩৪ দশমিক ৮০ শতাংশ। সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে থাকা খুলনা বিভাগের ৪৭১টি কেন্দ্রের মধ্যে ১৯৫টিই ঝুঁকিপূর্ণ, যা শতকরা ৪১ দশমিক ৪০ শতাংশ। ঝুঁকি বিবেচনায় দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা রংপুর বিভাগের ৩০৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ১১৮টি ঝুঁকিপূর্ণ, যা শতকরা ৩৮ দশমিক ৮০ ভাগ। তৃতীয় অবস্থানে থাকা বরিশাল বিভাগের ১৬৭টি কেন্দ্রের মধ্যে ৬৩টি

ঝুঁকিপূর্ণ,যা শতকরা ৩৭ দশমিক ৭০ভাগ। চতুর্থ অবস্থানে থাকা চট্টগ্রাম বিভাগের ৪৮০ টি কেন্দ্রের মধ্যে ১৬৯ টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ,  যা শতকরা ৩৫ দশমিক ২০ভাগ ।পঞ্চম অবস্থানে থাকা ঢাকা বিভাগের ৯৯১ টি কেন্দ্রের মধ্যে ঝুঁকিপূর্ণ ৩৪৮টি, যা শতকরা ৩৫ ভাগ। ৬ষ্ঠ অবস্থানে থাকা রাজশাহী বিভাগের ৮০১টি কেন্দ্রের মধ্যে ২৪৬ টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ, যা শতকরা ৩০ দশমিক ৭০ভাগ। এবং সবচেয়ে কম ঝুঁকিতে থাকা সিলেট বিভাগের ১৮৯ টি কেন্দ্রের মধ্যে ৪৫ টি কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ,  যা শতকরা ২৩ দশমিক ৮০ ভাগ। এসব কেন্দ্রে ঝুঁকির কারণ হিসেবে পাঁচটি কারণ উল্লেখ করা হয়েছে। সেগুলো হলো-  বিএনপি ও জামাত/শিবির নেতাকর্মীরা তাদের প্রার্থীদের নির্বাচনে জয়লাভ করানোর উদ্দেশ্যে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে ভোটকেন্দ্রে যাওয়া থেকে বিরত রাখতে নাশকতা/গোলযোগ সৃষ্টির অপচেষ্টা চালাতে পারে,  এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও একচেটিয়া ভোট লাভের চেষ্টায় বিভিন্ন রাজনৈতিক দল সমর্থিত প্রার্থীগণ কতিপয় কেন্দ্রে গোলযোগসৃষ্টি করতে পারে,  নির্বাচন কে বিতর্কিত কিংবা রাজনৈতিক পরিবেশকে অস্থিতিশীল করতে বিএনপি-জামায়াত গোলযোগসৃষ্টি করতে পারে,  ভোটগ্রহণ পরবর্তীতে পরাজিত প্রার্থীর সমর্থকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে,  পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কিংবা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে এলাকায় গোলযোগ করতে পারে এবং স্থানীয় আওয়ামীলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দল এবং আওয়ামীলীগের একাধিক প্রার্থীর প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে এলাকায় গোলযোগ সৃষ্টি করতে পারে।

ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র  সম্পর্কে নির্বাচন কমিশনের অতিরিক্ত সচিব মো. মোখলেসুর রহমান বলেন, কমিশনের কাছে ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র বলতে কিছু নেই। এগুলোকে গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে আখ্যায়িত করে থাকি। গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রগুলোতে ৮ জন অস্ত্রধারীসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ২০জন সদস্য মোতায়েন থাকবে। তিনি বলেন, পৌর নির্বাচনে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় র‌্যাব, পুলিশের পাশাপাশি বিজিবি ও কোস্টগার্ড মোতায়েন করা হবে। এছাড়া জুডিশিয়াল ও নির্বাহী মেজিস্ট্রেটরা মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করবেন।

(এইবেলা/এইচএস/এসএ)