- জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, সুনামগঞ্জ, স্লাইডার

ভারতে পাচার হচ্ছে সুনামগঞ্জ হাওরের মাছ

এইবেলা, সুনামগঞ্জ, ০৪ ডিসেম্বর:: সুনামগঞ্জের হাওরের মিঠাপানির সুস্বাদু মাছ সীমান্ত দিয়ে পাচার হচ্ছে উত্তর-পূর্ব ভারতের বিভিন্ন এলাকায়। এর ফলে সুনামগঞ্জবাসী হাওরাঞ্চলের সুস্বাদু মাছ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। অন্য সময়ের চেয়ে শীত এলেই মাছ পাচারের ঘটনা বাড়ে বলে একাধিক সূত্র জানিয়েছে। বিশেষ করে আন্তর্জাতিক রামসার সাইট খ্যাত টাঙ্গুয়ার হাওরের মাছ ধরমপাশার মহেশখলা সীমান্ত দিয়ে প্রতিদিনই উত্তর-পূর্ব ভারতে পাচার হচ্ছে বলে হাওর রক্ষণাবেক্ষণে নিয়োজিত একটি সংস্থার জানিয়েছে। এদিকে ভারতে হাওরের মাছ পাচারের সময় সম্প্রতি দুটি চালান আটক করেছে সুনামগঞ্জ ২৮ বিজিবি।

জানা যায়, উত্তর-পূর্ব ভারতের মেঘালয় ও খাসিয়া পাহাড় ভারতের মূল ভূখণ্ড থেকে বিচ্ছিন্ন। এসব দুর্গম এলাকার বাসিন্দারা বছরজুড়েই মাছ সংকটে থাকে। ফলে খাসিয়া-মেঘালয় পাহাড়ের ভারতীয় বাসিন্দাদের মধ্যে হাওরাঞ্চলের সুস্বাদু মিঠাপানির মাছের কদর রয়েছে। এই সুযোগে সুনামগঞ্জের বিভিন্ন সীমান্তে কিছু চোরাকারবারি সিন্ডিকেট সক্রিয় হয়ে উঠেছে। তারা শীত মৌসুমে হাওরাঞ্চলে মৎস্য আহরণের সময় ভারতের খাসিয়াদের মাধ্যমে নেশাজাত দ্রব্যের বিনিময়ে এই মাছ পাচার করে থাকে।

সুনামগঞ্জ ২৮ বিজিবি সূত্রে জানা যায়, গত ২৮ ডিসেম্বর মাছিমপুর সীমান্তের গামারিতলা থেকে এক চালান মাছ আটক করেন বিজিবির হাবিলদার মো. মোনায়েম খান। এ ছাড়া গত শনিবার বিজিবির টহল দল আরেকটি মাছের চালান আটক করে। এ সময় বিপুল মাদকদ্রব্যও আটক করেন বিজিবি সদস্যরা। তা ছাড়া টাঙ্গুয়ার হাওরসংলগ্ন মধ্যনগর সীমান্ত, তাহিরপুর উপজেলার বিভিন্ন সীমান্ত পয়েন্ট, সুনামগঞ্জ সদর, বিশ্বম্ভরপুর এবং দোয়ারাবাজার সীমান্তের বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে প্রতিনিয়ই মাছ পাচার হচ্ছে বলে একাধিক সূত্র জানিয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক টাঙ্গুয়ার হাওর রক্ষণাবেক্ষণে নিয়োজিত একটি বেসরকারি সংস্থার এক কর্মকর্তা জানান, টাঙ্গুয়ার হাওরের মাছ প্রতিদিনই হাওরসংলগ্ন মহেশখলা সীমান্তের বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে ভারতে পাচার হচ্ছে। খাসিয়ারা মাদকদ্রব্য দিয়ে বিনিময়ে মাছ নিয়ে যাচ্ছে।

ধরমপাশা উপজেলার উত্তর-বংশীকুণ্ডা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. জামাল হোসেন বলেন, ‘আমার এলাকার সীমান্ত দিয়ে ভারতে মাছ পাচার হচ্ছে সে বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে শুনেছি, আমার পূর্ব এলাকার সীমান্ত দিয়ে কিছু মাছ ভারতে পাচার হচ্ছে।’

সুনামগঞ্জ ২৮ বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল গোলাম মহিউদ্দিন খন্দকার বলেন, ‘শীত মৌসুমে সুনামগঞ্জের সীমান্ত এলাকা দিয়ে মাছ পাচারের ঘটনা ঘটে। তবে খবর পেলেই আমরা তা আটক করি। আমাদের দেশ থেকে যাতে কোনো কিছু ভারতে পাচার না হয় সেদিকে বিজিবির দৃষ্টি রয়েছে।’

সূত্র-কালেরকণ্ঠ

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *