জানুয়ারি ১১, ২০১৬
Home » জাতীয় » কুলাউড়ায় উদ্বেগজনক হারে বেড়েছে চুরি ডাকাতি আতঙ্কে প্রবাসী পরিবার

কুলাউড়ায় উদ্বেগজনক হারে বেড়েছে চুরি ডাকাতি আতঙ্কে প্রবাসী পরিবার

এইবেলা, কুলাউড়া, ১১ জানুয়ারি:: তীব্র শীতে কাবু তবুও মানুষের চোখে ঘুম নেই। হাতে লাঠি বাঁশি নিয়ে চলছে পাহারা। তারপরও উদ্বেগ উৎকন্ঠা। নিজের কষ্টার্জিত সম্পদ আর গৃহপালিত পশু রক্ষায় মানুষের নির্ঘুম রাত কাটে। কুলাউড়া উপজেলার মানুষের কাছে রাত নামে আতঙ্ক নিয়ে, ভোরের আলোয় ফুটে স্বস্তির নি:শ্বাস নিয়ে।

কুলাউড়া উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে ডাকাত আতঙ্ক বিরাজ করছে। শীত মৌসুমের কুয়াশা ঢাকা রাতের আঁধারে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় চুরি-ডাকাতি বৃদ্ধি পেয়েছে। এ নিয়ে আতঙ্কে রয়েছেন ভুক্তভোগী জনসাধারণ ও প্রবাসী পরিবার।

গত কয়েক দিনের ব্যবধানে কুলাউড়া উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের রবিরবাজার, সদপাশা, উত্তর রাজনগর, ইটাহরি, টিলাগাঁও ইউনিয়নের বিজলীসহ বিভিন্ন গ্রামে গভীর রাতে ঘুমন্ত মানুষকে হাত-পা বেঁধে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে স্বর্ণালংকার, নগদ টাকা, মোবাইল ফোন, কাপড়চোপড় ইত্যাদি মালামাল লুট করে নিয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। হঠাৎ করে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতিতে প্রবাসী পরিবারসহ এলাকাবাসীর মধ্যে চরম উৎকণ্ঠা দেখা দিয়েছে। আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতিতে প্রবাসী পরিবারসহ এলাকাবাসীর মধ্যে চরম উৎকণ্ঠা দেখা দিয়েছে।

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, গত ৭ জানুয়ারি থেকে গতকাল সোমবার পর্যন্ত উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের সদপাশা গ্রামের ডা. বিধান চন্দ্র দেব,স্বপন দেব ও টিংকু দেব, একই ইউনিয়নের উত্তর রাজনগরে কামাল চৌধুরী, ইটাহরি গ্রামে সৈয়দ চিনু মিয়া, টিলাগাঁওয়ে হানিফ খান ও সৈয়দ নজরুল ইসলাম, রবিরবাজার মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল জব্বারের বাড়ীসহ আরও বেশ কয়েকটি বাড়ীতে হানা দিয়ে চোরচক্র নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, মোবাইল ফোন, কাপড় চোপড়সহ প্রায় দেড় কোটি টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে। এদিকে গত রোববার রাতে জয়চন্ডী ইউনিয়নের আবুতালিপুর গ্রামের দেওখান খাঁর ১ টি, আব্দুল হাশিমের ৪টি, সুবন্ত চন্দ্র দাসের ৩টিসহ একরাতে মোট ৮টি গরু চুরি হয়।

এদিকে গত কয়েক দিন থেকে আকষ্মিক চুরি-ডাকাতি বৃদ্ধি সচেতন এলাকাবাসীর উদ্যোগে উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে রাত জেগে পাহারা বসানোর খবর পাওয়া গেছে। চুরি-ডাকাতি বৃদ্ধির কারণে উৎকণ্ঠায় রয়েছেন বিভিন্ন দেশে বসবাসকারী প্রবাসীরা। এলাকার চুরি-ডাকাতির খবর মুহূর্তের মধ্যে দেশ-বিদেশে ছড়িয়ে পড়লে প্রবাসীরা যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, মধ্যপ্রাচ্যসহ বিভিন্ন দেশ থেকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে দেশে বসবাসরত স্বজনদের খোঁজখবর নিচ্ছেন নিয়মিত।

কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সামসুদ্দোহা পিপিএম এইবেলাকে জানান, চুরি-ডাকাতির নানা খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। সন্দেহভাজন আসামিদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এজন্য তিনি সবার সহযোগিতা চেয়েছেন। কুলাউড়ায় চলমান চুরি-ডাকাতি বন্ধে পুলিশের তৎপরতা চলছে।

রিপোর্ট-আহমেদ সেলিম