জানুয়ারি ২৮, ২০১৬
Home » জাতীয় » শপথ নিতে পারলেন না বড়লেখার কনিষ্ঠতম কাউন্সিলর

শপথ নিতে পারলেন না বড়লেখার কনিষ্ঠতম কাউন্সিলর

এইবেলা, বড়লেখা, ২৮ জানুয়ারি:: মৌলভীবাজারের বড়লেখা পৌরসভা নির্বাচনে মাত্র ২৫ বছর বয়সেই ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে বিজয়ী হয়ে আলোচনায় ওঠে এসেছিলেন রাহেন পারভেজ রিপন। তবে কম বয়সে কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেও বয়সসংক্রান্ত জটিলতায় তিনি শপথ নিতে পারেন নি।

জানা যায়, বুধবার সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে সিলেটের নবনির্বাচিত সকল মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। অন্যান্য মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের মতো রিপনও শপথ নিতে সিলেট আসেন। তবে আদালতের স্থগিতাদেশের কারণে বড়লেখা পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রিপনকে শপথ পড়াতে অস্বীকৃতি জানান বিভাগীয় কাউন্সিলর জামাল উদ্দিন ভূঁইয়া। ফলে শপথ না নিয়েই ফিরে যেতে হয় তাকে।

জানা যায়, নির্বাচনে রিপনের কাছে পরাজিত প্রার্থী শামীম আহমদ উচ্চ আদালতে ৮ নং ওয়ার্ডের নির্বাচনের গেজেট প্রকাশের উপর স্থগিতাদেশ চেয়ে আবেদন করেন। রিপনের বয়স কম দেখিয়ে এ আবেদন করেন তিনি। তাঁর আবেদন আমলে আদালত এই ওয়ার্ডের গেজেট প্রকাশের উপর স্থগিতাদেশ জারি করেন। এ কারণে বুধবার অন্যদের সাথে শপথ নিতে পারেননি রিপন।

এ ব্যাপারে রাহেন পারভেজ রিপন বলেন, আমি কিছুই জানি না। আদালতের স্থগিতাদেশ সংক্রান্ত কোনো চিঠিও পাইনি। বুধবার শপথ নিতে আসলে আমাকে শপথ বাক্য পাঠ করানো হয়নি।

এ ব্যাপারে মেয়র কাউন্সিলরদের শপথ পাঠ করানো সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার জামাল উদ্দিন ভূইয়া বলেন, আদালতের নির্দেশনা থাকায় রিপনকে শপথ পাঠ করানো হয়নি।

উল্লেখ্য, গত ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে মাত্র ৭ ভোটের ব্যবধানে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীকে পরাজিত করে বিজয়ী হন রিপন।

পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ড থেকে আওয়ামীলীগের সমর্থনে ৩৭৯ ভোট পান তিনি। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ২ বারের পৌর কাউন্সিলর বিএনপির শামীম আহমদ ৩৭২ ভোট পেয়েছেন।

বিজয়ের দিন রাহেনের বয়স ছিল ২৫ বছর ১১ মাস ১৪ দিন। যা বড়লেখা পৌরসভার ইতিহাসে সবচেয়ে কমবয়সী কাউন্সিলরের রেকর্ড।

রাহেন পারভেজ রিপন পৌর শহরের মহুবন্দ গ্রামের আব্দুল আজিমের পুত্র। ৩ ভাই ও এক বোনের মধ্যে রিপন ২য়। এখনো শিক্ষাজীবন শেষ না করা রাহেন পৌর ছাত্রলীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদকও।

রিপোর্ট-লিটন শরীফ