মে ২৪, ২০১৫
Home » জাতীয় » হবিগঞ্জে নার্সের অবহেলায় শিশু মৃত্যুর অভিযোগ

হবিগঞ্জে নার্সের অবহেলায় শিশু মৃত্যুর অভিযোগ

এইবেলা, হবিগঞ্জ, ২৪মে:
হবিগঞ্জ জেলা আধুনিক হাসপাতালে নার্সের অবহেলায় মারিয়া আক্তার নামে ১০ মাসের শিশু মারা গেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে নার্সরা বলছেন শিশুটির হার্টের সমস্যা ছিল, আরএ কারণে সে মারা গেছে।

সূত্র জানায়, মাধবপুর উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের ফুরুক মিয়ার ১০ মাসের শিশুকন্যা মারিয়া আক্তার শনিবার বিকেল ৩টার দিকে হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে তাৎক্ষণিক হবিগঞ্জ জেলা আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সময় কর্মরত ডাক্তার জানান, মেয়েটির যে সমস্যা তাকে এখানে ভর্তি করে চিকিৎসা দিলেই চলবে। তবে শিশুটিকে অক্সিজেন দিতে হবে। এরপর ডাক্তার কিছু ওষুধ দিয়ে তাকে শিশু ওয়ার্ডে পাঠিয়ে দেন। সেখানে কর্মরত নার্সরা ডাক্তারের দেয়া ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী তার চিকিৎসা চালিয়ে যান। সন্ধ্যার দিকে মারিয়ার বাবা ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী একটি ইনজেকশন এনে মারিয়ার শরীরে পুশ করার কথা বললে কর্মরত নার্সরা ওই ইনজেকশনটি পুশ না করে মারিয়ার মুখ থেকে অক্সিজেন মাস্ক খুলে হাসপাতালে পূর্বের রাখা আরেকটি ইনজেকশন পুশ করেন। মারিয়ার শরীরে ওই ইনজেকশন পুশ করার সঙ্গে সঙ্গে তার শরীর নীল হয়ে যায়। এর কিছুক্ষণ পর কর্মরত ডাক্তার মিঠুন চক্রবর্তী শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে শিশু মারিয়া আক্তারের পিতা ফুরুক মিয়া জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার পর বার বার গিয়েও ডাক্তার পাওয়া যায়নি। ডাক্তাররা নার্স দিয়ে তাদের চিকিৎসা করাতে চান। ডাক্তার ও নার্সের অবহেলায় আমার মেয়ে মারিয়ার মৃত্যু হয়েছে। আমি এর বিচার চাই। তবে নার্সদের দাবি, তাদের চিকিৎসায় কোন অবহেলা ছিল না। শিশুটি হার্টের রোগী ছিল।

জেলা আধুনিক হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা: দেবাশীষ দাশ জানান, শিশুটিকে শেষ মুহূর্তে হাসপাতাল আনা হয়েছে। নার্সের অবহেলায় তার মৃত্যু ঘটেনি।

রিপোর্ট-হবিগঞ্জ প্রতিনিধি, সম্পাদনা-আহমেদ সেলিম