- জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, রাজনীতি, সিলেট, সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ

কেন্দ্রে স্থান পেতে সিলেটের এক ডজন নেতার দৌড়ঝাঁপ

এইবেলা, সিলেট, ১৭ অক্টোবর:: আওয়ামী লীগের আসন্ন জাতীয় সম্মেলনে কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পেতে সিলেটের এক ডজন নেতার দৌড়ঝাঁপ শুরু হয়েছে। তারা প্রত্যাশিত পদ পেতে রয়েছেন জোর লবিংয়ে। ঢাকার কেন্দ্রীয় নেতাদের মাধ্যমে দায়িত্বশীলদের কাছে নিজেদের অবস্থান তুলে ধরার চেষ্টা করছেন। কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদকীয় পদের চেয়ে কম গুরুত্বপূর্ণ বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদকের পদটিই তাদের কাছে লোভনীয় হয়ে উঠেছে। এ পদের জন্য স্থানীয় নেতাদের আগ্রহ বেশি।

তবে কেন্দ্রে পদ পেতে নিজ নিজ অবস্থান থেকে পদপ্রত্যাশীরা জোর লবিং চালালেও ঘোষণা দিতে নারাজ তারা। সবার মুখে একই কথা, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা দলের প্রয়োজনে যে দায়িত্ব দেবেন, তাই তারা মেনে নিবেন। প্রত্যাশিত পদ না পেলেও তাদের কোনো ক্ষোভ থাকবে না। আওয়ামী লীগের স্থানীয় তৃণমূল নেতারা এবার সাংগঠনিক সম্পাদক পদে পরিবর্তন চান। তারা মনে করেন, মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ টানা দু’বার এ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। এবার এ পদে নতুন মুখ প্রত্যাশা করছেন তারা। সাবেক মেয়র কামরানের অনুসারীরা এ পদটি পেতে আশাবাদী। সাংগঠনিক সম্পাদক না থাকলেও কোনো সম্পাদকীয় পদে সিরাজকে দেখতে চান তার অনুসারীরা। নতুন কমিটিতে কে আসছেন আর কে বাদ পড়ছেন, সম্মেলন শেষেই জানা যাবে।

সিলেট ছাড়াও সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জের কয়েকজন নেতা কেন্দ্রীয় কমিটিতে পদ লাভের দৌড়ে রয়েছেন। আওয়ামী লীগের ওয়ার্কিং কমিটিতে বর্তমানে সিলেটের ৫ নেতা রয়েছেন। তবে নীতি নির্ধারণী কমিটি প্রেসিডিয়ামে কেউ নেই। একসময় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগে সিলেটের প্রয়াত সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুস সামাদ আজাদ, সাবেক মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত ও সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ দাপুটে নেতা ছিলেন। বর্তমান কমিটিতে থাকা অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ও সাবেক মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত রয়েছেন উপদেষ্টা পরিষদে।

শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদকের দায়িত্বে আছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ ও নির্বাহী সদস্য হিসেবে কমিটিতে আছেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান এমপি। বিভিন্ন সম্পাদকীয় পদের বিপরীতে গঠিত উপকমিটির সহ-সম্পাদক পদে রয়েছেন অ্যাডভোকেট আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী এমপি, আজিজুস সামাদ ডন।

আসন্ন সম্মেলনে সিলেট বিভাগ থেকে যেসব নেতা কেন্দ্রীয় কমিটিতে পদ পেতে জোর লবিংয়ে রয়েছেন তাদের মধ্যে স্বপদে থাকতে চান কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ। একই পদপ্রত্যাশী সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক সিটি মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের প্রশাসক ব্যারিস্টার এনামুল হক ইমন, হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আবু জাহির এমপি।

এছাড়াও কেন্দ্রে স্থান পেতে লবিংয়ে আছেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক শাহ শামীম আহমদ, সুনামগঞ্জ-৫ আসনের এমপি মুহিবুর রহমান মানিক, সিলেট-হবিগঞ্জ সংরক্ষিত আসনের এমপি অ্যাডভোকেট আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী, সাবেক এমপি সৈয়দা জেবুন্নেছা হক, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুস সামাদ আজাদের ছেলে আজিজুস সামাদ ডন, হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুল মজিদ এমপি।

এছাড়াও আলোচনায় রয়েছেন জাতীয় সংসদের হুইপ শাহাব উদ্দিন এমপি ও সাবেক চিফ হুইপ উপাধ্যক্ষ আবদুস শহীদ এমপি। আওয়ামী লীগের এবারের কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পেতে পারেন জাতিসংঘ মিশনের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ড. আবুল কালাম আবদুল মোমেন। জাতিসংঘ থেকে দেশে ফিরে তিনি শেখ হাসিনার নির্দেশে সিলেটের স্থানীয় উন্নয়ন নিয়ে সক্রিয় রয়েছেন।

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *