অক্টোবর ২৩, ২০১৬
Home » ব্রেকিং নিউজ » কমলগঞ্জের কুরমা চা বাগানে চা শ্রমিকের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

কমলগঞ্জের কুরমা চা বাগানে চা শ্রমিকের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, কমলগঞ্জ, ২ ৩ অক্টোবর ::মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে ন্যাশনাল টি কোম্পানীর মালিকানাধীন একটি চা বাগানে চা শ্রমিকের উপর হামলাকারীদের বাগান থেকে উচ্ছেদের দাবীতে মানববন্ধন করেছে চা শ্রমিকরা। শনিবার ২২ অক্টোবর কুরমা চা বাগানে শতাধিক শ্রমিকদের অংশগ্রহণে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন কুরমা চা বাগান পঞ্চায়েত সভাপতি নারদ পাশী. সম্পাদক দীলিপ পানিকা. শিউকুমার বীন প্রমুখ।গত বুধবার(১৯ অক্টোবর) রাতে প্রতিপক্ষের হামলার কমলগঞ্জের সীমান্তবর্তী ইসলামপুর ইউনিয়নের কুরমা চা বাগান পশ্চিম লাইনের বাসিন্দা বালক দাশ পানিকা (৪০) ও তার ভাই দীপক দাশ পানিকা (৩০)র উপর একই বাগানের সুজন নুনিয়া (৩০), নয়ন নুনিয়া (২৮) ও টুমু নুনিয়া-শিশু (২৫)সহ ৮-১০জনের একটি দল তাদের উপর দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রসহ অতর্র্র্কিতে হামলা চালিয়ে মারাত্মক আহত করে।  এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ থানায় একটি মামলা হয়েছে। পুলিশ দুইজন আসামীকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে।
মামলার বিবরণী ও চা বাগান সূত্রে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত বুধবার (১৯ অক্টোবর) এর রাত আটটায় কমলগঞ্জের সীমান্তবর্তী ইসলামপুর ইউনিয়নের কুরমা চা বাগানে পশ্চিম লাইনের বাসিন্দা বালক দাশ পানিকা (৪০)  কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে চৌমুহনী শিব মন্দিরের সামনের রাস্তায় কুরমা চা বাগানের সুজন নুনিয়া (৩০), নয়ন নুনিয়া (২৮) ও টুমু নুনিয়া-শিশু (২৫)সহ ৮-১০জনের একটি দল তাদের উপর দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রসহ অতর্র্র্কিতে হামলা চালিয়ে মারাত্মক আহত করে। এ সময় তাদের চিৎকার চেচামেচি শূনে তার ভাই ও তার ভাই দীপক দাশ পানিকা (৩০) এগিয়ে আসলে তাকে মারধর করে রক্তাক্ত আহত করে। পরে বাগান পঞ্চায়েত সভাপতি নারদ পাশী, সম্পাদক দীলিপ পাশীহ স্থানীয়রা এসে আহতদের উদ্ধার করে বাগান কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে আহতদের দ্রুত কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করেন। এ ঘটনায় বুধবার রাতেই বালক দাশ পানিকা বাদী হয়ে কমলগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। বুধবার গভীর রাতে কমলগঞ্জ থানা পুলিশের অভিযানে নয়ন নুনিয়া ও টুমু নুনিয়া শিশু নামে দুইজন আসামীকে গ্রেফতার করে। বৃহষ্পতিবার গ্রেফতারকৃত আসামীদের মৌলভীবাজার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

কুরমা চা বাগানের ব্যবস্থাপক শাহাদাত হোসেন জানান, তিনি হামলার বিষয়টি কমলগঞ্জ থানাসহ বাগানের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছেন। ইসলামপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান চা শ্রমিকদের উপর হামলার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, হামলাকারীরা একটি প্রভাবশালী মহলের ইন্ধনে বাগানে শান্তি-শৃংখলা বিনষ্টসহ অরাজকতা সৃষ্টি করছে।

কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বদরুল হাসান বলেন, এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং ঘটনার সাথে জড়িত দুইজনকে আটক করা হয়েছে। #