ফেব্রুয়ারি ৬, ২০১৭
Home » জাতীয় » কুলাউড়ায় টিকাদান কার্যক্রম নিয়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ

কুলাউড়ায় টিকাদান কার্যক্রম নিয়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ

এইবেলা, কুলাউড়া, ০৬ ফেব্রুয়ারি :: কুলাউড়া উপজেলায় সরকারি সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচি (ইপিআই) আওতায় সংক্রামক রোগ প্রতিরোধের জন্য ১০টি টিকা প্রদানে সংশ্লিষ্ট কর্মীদের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। কর্মীদের গাফিলতির কারণে সঠিকভাবে টিকা প্রদান না করায় উপজেলার বিভিন্ন এলাকার শিশুরা মারাত্তক রোগের ঝুঁকিতে রয়েছে।  জেলা স্বাস্থ্য কমিটির সভায় কুলাউড়া স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীদের গাফলতির চিত্রটি ফুটে উঠে এবং জেলার ৭ উপজেলার মধ্যে কুলাউড়ার ইপিআই কার্যক্রম নিম্নগামী হিসাবে চিহ্নিত করে এ ব্যাপারে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার ১৩ ইউনিয়ন ও ১ টি পৌরসভার ৩৯ টি ওয়ার্ডে  ৩শ ১২ টি  সাব ব্লকে সবমিলিয়ে ৭০ জন কর্মচারী বিভিন্ন পর্যায়ে কাজ করছেন। তন্মধ্যে  স্বাস্থ্য পরিদর্শক ১ জন, সহ স্বাস্থ্য পরিদর্শক ১১ জন, স্বাস্থ্য সহকারী ৫৭ জন এবং তাদের মনিটরিংয়ের জন্য একজন মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (ইপিআই) রয়েছেন।

জানা যায়, ইপিআই সংশ্লিষ্টদের গাফলতির কারণে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় হামরুবেলায় আক্রান্ত হয়েছেন অনেক শিশু। গত দুই মাসে পুরো উপজেলায় ২০ জনেরও অধিক শিশু আক্রান্ত হওয়ার প্রমানাদি পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ভুকশিমইলের সাদিপুর জেলে পল্লীর ১৬ জন শিশু হাম-রুবেলায় আক্রান্ত খবর পাওয়া গেছে। তাছাড়াও ওই এলাকায় ১৭ জন শিশু সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচির (ইপিআই) টিকা পাননি। হাম-রুবেলা সংক্রামক ব্যাধি হওয়ায় মারাত্মক ঝুঁকিতে রয়েছে শিশুরা।

কুলাউড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (ইপিআই) আপ্তাব উদ্দিন জানান, ইপিআই কার্যক্রম গত বছর জেলার অন্যান্য উপজেলার মধ্যে কুলাউড়ার অবস্থান ভালো ছিল। এবার কমেছে। প্রতিবছর একেক উপজেলা আপডাউন হয়। তবে কুলাউড়াকে এগিয়ে নিতে বর্তমানে কর্মীরা নিরলসভাবে কাজ করছেন।

কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ নুরুল হক জানান, পূর্বে কি হয়েছে সেটা নিয়ে আমি ঘাটাঘাটি করব না। এখন থেকে এ বিষয়ে কোন ছাড় দেয়া হবেনা। বর্তমানে ইপিআই সংশ্লিষ্টদের কোন ধরনের গাফলতি পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তবে তিনি আরও জানান, উপজেলার রিমোট এরিয়ায় জনসাধারনের মধ্যে সচেতনতার অভাবে সেসকল এলাকাগুলোতে ইপিআই কর্মসূচি সফল হচ্ছেনা। তবে এ সকল রিমোট এলাকায়ও এখন থেকে মনিটরিং বাড়ানো হবে। ##