জুন ২, ২০১৫
Home » ব্রেকিং নিউজ » রাজনগরে কাশিমপুরে ৬দিন ধরে চলছে প্রশাসনের ১৪৪ ধারা

রাজনগরে কাশিমপুরে ৬দিন ধরে চলছে প্রশাসনের ১৪৪ ধারা

এইবেলা, রাজনগর,  ২জুন: মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার করাদাইর নদীর দখল ও আধিপত্য বিস্থার নিয়ে সৃষ্ট পরিস্থিতির জেরে প্রশাসনের জারি করা ১৪৪ ধারা ৬দিন ধরে বলবৎ রয়েছে। পরিস্থিতি অনুকোলে না আসায় এ নিষেধাজ্ঞা বলবৎ রয়েছে বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে।

গত ২৮শে মে বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা থেকে অনির্দিষ্ট কালের জন্য এ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আইনুর আক্তার পান্না।

প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, রাজনগর উপজেলার কাউয়াদীঘি হাওরের সঙ্গে কুশিয়ারা নদীর সংযোগ নদ কারাদাইর-এ মাছের প্রজনন বৃদ্ধির লক্ষ্যে ‘ফিসফাস প্রজেক্ট’ নামে একটি প্রকল্প কারা হয় ২৫ বছর আগে। ওই নদী চলমান হওয়ায় এবং ফিসফাস প্রজেক্ট থাকায় প্রশাসন এটির ইজারা দেয়া হয়নি। কিন্ত গত ১৪২০ বাংলা সনে মন্ত্রনালয় থেকে একটি মৎস্যজীবি সমিতির নামে ইজারা দেয়া হলে এ নিয়ে আদালতে মামলা চলে। সম্প্রতি এই নদীর দখল নিয়ে স্থানীয় দুটি পক্ষ ওই এলাকার কাশিমপুর বাজারে বেশ কয়েকবার সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। উভয় পক্ষে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনাও ঘটে। গত ২৪ মে দুই পক্ষের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে আখল মিয়া (৫৫), সাদ্দাম মিয়া (২২), রুকন মিয়া (১৮), জয়নাল মিয়া (৫৫), সুহেল মিয়া (২২)। গুরুতর আহত আখল মিয়াকে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

গত বৃহস্পতিবার (২৮শে মে) ভোর ৫টা থেকে কাশিমপুর বাজারে জয়নাল মিয়া ও ইউনুছ মিয়ার নেতৃত্বে দুই পক্ষ স্বসস্ত্র অবস্থান নেয়। খবর পেয়ে রাজনগর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। পরে সংঘর্ষ এড়াতে সেখানে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অনির্দিষ্ট কালের ১৪৪ ধারা জারি করা হয়।

রাজনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আইনুর আক্তার পান্না এইবেলাকে  জানান, হাওরের করাদাইর নদীর দখল নিয়ে দুই পক্ষে বেশ কিছু দিন থেকে সংর্ঘষ এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছিল। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। আমরা এক সপ্তাহ দেখে এ নিষেজ্ঞা প্রত্যাহার করা হবে।

 রিপোর্ট-আব্দুর রহমান সোহেল