- জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, স্থানীয়, স্লাইডার

কমলগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, কমলগঞ্জ, ১১ মার্চ :: বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন, স্বাধীনতার ৪৫ বছর পরও এখনও প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা যাচাই বাছাই করা হচ্ছে, তা ভাবতে অবাক লাগে। এখনও প্রশ্ন জাগে কে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা, কে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা নয়। এত রক্তের বিনিময়ে এবং এত কম সময়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জন পৃথিবীর ইতিহাসে বিরল। দেশে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার সঠিক তথ্য প্রয়োজন। অনেকে মুক্তিযুদ্ধে অংশ না নিয়ে এবং হত্যাযজ্ঞে অংশ নিয়ে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে তালিকাভূক্ত করে রাষ্ট্রীয় সুবিধা নিচ্ছেন। স্বাধীনতার পর দেশে ইতিহাস বিকৃতি হয়েছে। স্বাধীনতা বিরোধীরা কম সময়ের মধ্যেই দেশের রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় এসেছিল। এজন্য কি মুক্তিযোদ্ধারা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিল। মুক্তিযোদ্ধাদের ভিভিআইপি মর্যাদা দেয়া উচিত।

কমলগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করতে পেরে আমি নিজেকে ধন্য মনে করছি জানিয়ে তিনি বলেন, এক সাগর রক্তের বিনিময়ে মুক্তিযোদ্ধাদের ত্যাগের বিনিময়ে আজ আমি প্রধান বিচারপতি পদে আসীন হয়েছি। কেউ অপরাধ করে থাকলে তার বিচার হবেই। অপরাধীকে শাস্তি পেতেই হবে। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিন্হা শুক্রবার সন্ধ্যায় কমলগঞ্জ উপজেলার ভানুগাছ বাজারের ১০নং চত্বরে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর কর্তৃক ২ কোটি ৯ লক্ষ টাকা ব্যয়ে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের আনুষ্ঠানিক ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মাহমুদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন মৌলভীবাজার জেলা ও দায়রা জজ শফিকুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক তোফায়েল ইসলাম, বিজিবির সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল আশরাফুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহজালাল, চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্যাট একিউএম নাসির উদ্দিন, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ সদস্য, কমলগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. জামাল উদ্দিন, মৌলভীবাজার জজকোর্টের পিপি এড. এএসএম আজাদুর রহমান, এলজিইডি মৌলভীবাজার এর নির্বাহী প্রকৌশলী কামরুল ইসলাম। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডর আব্দুল মুনিম তরফদার, বীর মুক্তিযোদ্ধা আনন্দ মোহন সিন্হা প্রমুখ।

এর আগে প্রধান বিচারপতির সম্মানে সিলেট অঞ্চলের ঐতিহ্যবাহী ধামাইল নৃত্য ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গণ সঙ্গীস পরিবেশন করা হয়। অনুষ্ঠানে কমলগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের পক্ষ থেকে প্রধান বিচারপতিকে ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *