- জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, স্থানীয়, স্লাইডার

কমলগঞ্জে চোরাই সেগুন কাঠ উদ্ধার : আটক-১

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, কমলগঞ্জ. ১৫ মে :: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় প্রায় ১৫০ ঘনফুট চোরাই সেগুন কাঠ উদ্ধার করা হয়েছে। গত রোববার সন্ধ্যায় রহিমপুর ইউনিয়নের বড়চেগ গ্রামের লেবু মিয়া ও হান্নান মিয়ার বাড়ির পাশ থেকে পুলিশ ও বন বিভাগ এসব কাঠ উদ্ধার করে। এ সময়ে হান্নান মিয়া নামে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। উদ্ধারকৃত ৩০ টুকরো সেগুন কাঠ থানায় নিয়ে পুলিশ ৫৪ ঘনফুট দেখিয়ে নিয়মিত মামলা দিয়েছে।

স্থানীয় এলাকাবাসী ও বনবিভাগ সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কমলগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক মো. ইকবাল, আব্দুল আজিজ ও আব্দুল হামিদের নেতৃত্বে একদল পুলিশ গত রোববার দুপুর থেকে বড়চেগ গ্রামে অবস্থান করে। এরপর সেখান পরিত্যক্ত ৩৫ টুকরো সেগুন কাঠ পাওয়া যায়। প্রথমে পুলিশ ৫ টুকরো সেগুন কাঠ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে। পরবর্তীতে সিলেট বিভাগীয় বনকর্মকর্তার নির্দেশে সন্ধ্যায় রাজকান্দি বনরেঞ্জের লোকজন সেখানে উপস্থিত হলে উদ্ধারকৃত ৩০ টুকরো কাঠসহ বাড়ির মালিক হান্নান মিয়াকে আটক করে পুলিশ থানায় নিয়ে আসে। বনবিভাগের লোকজন সেখানে উপস্থিত হলেও পুলিশ বনবিভাগের কাছে কাঠ হস্তান্তর না করে থানায় নিয়ে যায়। তবে সরেজমিনে থানায় গিয়ে উদ্ধারকৃত ৩০ টুকরো সেগুন কাঠ পাওয়া যায়। বনবিভাগের একজন কর্মচারী বলেন, এখানে কমপক্ষে ১৫০ ঘনফুট কাঠ হবে। যার বাজার মূল্য কমপক্ষে প্রায় ৫ লাখ টাকা হবে।

রাজকান্দি বনরেঞ্জের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল আহাদ বলেন, বিভাগীয় বনকর্মকর্তার নির্দেশে অফিসের লোকজন সন্ধ্যায় সরেজমিনে সেখানে পৌঁছায়। এরমধ্যে পুলিশ প্রথমে কাঠ সহ একটি গাড়ি থানায় পাঠায়। পরবর্তীতে আরও একটি গাড়ি ভর্তি কাঠ থানায় পাঠানো হয়।

কমলগঞ্জ থানার এসআই মো. ইকবাল বলেন, কঠোর পরিশ্রম করে ২০ টুকরায় ৫৪ ঘনফুট কাঠ উদ্ধার করা হয়েছে এবং এ ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার দেখিয়ে নিয়মিত মামলা করা হয়েছে।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *