- খেলা, জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, স্লাইডার

বাংলাদেশ-ভারত টেস্ট বৃষ্টির কল্যাণে ড্র

ইবেলা স্পোর্টস ডেস্ক:
শেষ পর্যন্ত ড্র দিয়েই শেষ হলো বার বার বৃষ্টিতে বাধা পাওয়া ফতুল্লা টেস্ট। ভারতের ৪৬২ রানের বিপরীতে ব্যাট করতে নামা বাংলাদেশ ফলো অনে পড়লে আবারো ব্যাট করতে নামে। তবে বিনা উইকেটে ২৩ রান তুলে ফেলার পর বাংলাদেশের দুই ওপেনার তামিম ইকবাল এবং ইমরুল কায়েসের সঙ্গে করমর্দনের মাধ্যমে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি জানিয়ে দেন যে ড্র-তেই তিনি সম্মত।
৩ উইকেট হারিয়ে ১১১ রান নিয়ে শেষ দিনের ব্যাটিং শুরু করে বাংলাদেশ। ফলো অন এড়ানোর জন্য বাংলাদেশের দরকার ছিলো ২৬২ রান। কিন্তু ২৫৬ রানে অলআউট হলে ফলো অনে পড়ে বাংলাদেশ। আগের দিন ব্যাট করা ইমরুল কায়েস দেখেশুনে খেলতে থাকলেও দ্রুতই ফিরে যান আরেক প্রান্তে ব্যাট করা সাকিব আল হাসান। এরপর  সৌম্য সরকার এবং ইমরুল কায়েস বেশ ভালোভাবেই এগিয়ে নিতে থাকেন বাংলাদেশের ইনিংস।
১৭২ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ৭২ রান করে সাজঘরে ফেরেন ইমরুল। তার বিদায়ের পরপরই তার পথ ধরেন সৌম্যও। ৬৭ বলে ৩৭ রান করে বরুন অ্যারনের বলে বোল্ড আউট হন সৌম্য। এরপর লিটন দাসের ওয়ানডে স্টাইলে খেলা ৪৪ রানের ইনিংসের সুবাদের ২৫০ পার হয় বাংলাদেশের ইনিংস। শেষ পর্যন্ত ২৫৬ রানে গুটিয়ে যায় ইনিংস। রবিচন্দ্রন অশ্বিন ২৫ ওভার বল করে ৮৭ রানের বিনিময়ে তুলে নেন ৫ টি উইকেট। এছাড়া হরভজন সিংয়ের শিকার তিনটি।
ফলো অনে পড়ে ব্যাট করতে নামে বাংলাদেশ। তামিম ইকবাল এবং ইমরুল কায়েস ১৫ ওভারে বিনা ২৩ রান করলে ড্র-ই মেনে নে ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। সিরিজের একমাত্র টেস্ট ম্যাচটি ড্র হওয়ায় শিরোপা ভাগাভাগি করেই সন্তুষ্ট থাকতে হলো ম্যাচে সুবিধাজনক অবস্থায় থাকা ভারত।
এর আগে প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে বৃষ্টি বিঘ্নিত প্রথম দুই দিন ব্যাট করে ৬ উইকেট হারিয়ে ৪৬২ রান সংগ্রহ করে ভারত। শিখর ধাওয়ান করেন ১৭৩ রান আর মুরালি বিজয়ের ব্যাট থেকে আসে ১৫০ রান। এছাড়া মাত্র ২ রানের জন্য শতক বঞ্চিত হন আজিঙ্কা রাহানে।
১৯৫ বলে ১৭৩ রানের ইনিংস খেলে ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতেন শিখর ধাওয়ান।

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *