- জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, স্থানীয়, স্লাইডার

কমলগঞ্জে সাংবাদিকের উপর হামলা

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ. কমলগঞ্জ. ২৪ জুলাই ::
সংস্কারাধীন গ্রাম্য কাঁচা রাস্তায় ট্রাক্টর চলাচলে আপত্তি দেয়ায় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের পতনউষার ইউনিয়নে চলন্ত মোটরসাইকেলে এক সাংবাদিকের উপর হামলা চালায় এক ট্রাক্টর চালক। আহত সাংবাদিক ফটিকুর ইসলাম রাজু মৌলভীবাজার থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক পূর্ব দিক পত্রিকার কমলগঞ্জ প্রতিনিধি। ২৪ জুলাই সোমবার বেলা সাড়ে ১২টায় পতনউষর ইউনিয়ন সদরের শহীদনগর বাজারে এ ঘটানাটি ঘটে।

মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সাংবাদিক ফটিকুল ইসলাম জানান, সম্প্রতি ইউনিয়ন পরিষদ ও গ্রামবাসীর সহায়তায় শ্রীসূর্য্য রথটিলার একটি গ্রাম্য কাঁচা রাস্তায় মাটি ফেলে সংস্কার করা হয়েছিল। সংস্কারকৃত এ কাঁচা রাস্তায় কয়েক দিনের জন্য ট্রাক্টরসহ বড় কোন যানবাহন চলাচল না করে সে জন্য আগে থেকেই চালকদের অনুরোধ করা হয়েছিল। গ্রামবাসীর অনুরোধ উপেক্ষা করে একই ইউনিয়নের টিলাগড় গ্রামের ট্রাক্টর চালক কাশেম মিয়া [২৮] রোববার বিকালে এ গ্রামের প্রবাসী বশির মিয়ার নির্মাণাধীন বাড়িতে ইট পরিবহন করেন। পরে আবার ট্রাক্টর দিয়ে বালু পরিবহনকালে গ্রামবাসীরা ট্রাক্টরের গতিরোধ করে। গ্রামবাসীর আপত্তি না মেনে ট্রাক্টর চালক গ্রামবাসীদের উপর দিয়ে ট্রাক্টর চালিয়ে যাবার চেষ্টা করেন। অবশেষে গ্রামবাসীরা সবাই মিলে ট্র্ক্টারটির গতিরোধ করেন। এ জন্য রোববার বিকালে ট্রাক্টর চালক কাশেম মিয়ার সাথে তার [সাংবাদিক ফটিকুল ইসলামের সাথে] তর্কবিতর্ক হয়। এর জের ধরে ট্রাক্টর চালক ওৎ পেতে বসে থেকে সোমবার দুপুরে তার উপর [সাংবাদিক ফটিকুর ইসলামের] চলন্ত মোটরসাইকেলের উপর একটি কাঁঠের বড় টুকরো দিয়ে হামলা চালায়। ঘটনার পর পরই হামলাকারী ট্রাক্টর চালক পালিয়ে যায়। ঘটনার পর এলাকাবাসীর সহায়তায় সাংবাদিক ফটিকুল ইসলামকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
পতনউষার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী তওফিক আহমদ বাবু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শুধুমাত্র কয়েক দিনের জন্য এ কাঁচা রাস্তায় বড় যানবাহন চলাচল ঊহৃ রাখতে সবাইকে অনুরোধ করেছিল গ্রামবাসী। সে অনুরোধ উপেক্ষা করে ট্র্ক্টার চালক কাশেম রোববার মালামাল পরিবহন করে আবার সোমবার সাংবাদিক ফটিকুল ইসলামের চলন্ত মোটরসাইকেলে হামলা করেছে যাহা ক্ষমার অযোগ্য বলে তিনি মনে করেন। তিনি ঘটনাটি দ্রুত কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক ও কমলগঞ্জ থানার ওসি বদরুল হাসানকে অবহিত করেছেন। তাছাড়া স্থানীয় ইউপি সদস্যের জিম্মায় ট্রাক্টরটি রাখা হয়েছে।

শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির উপ-সহকারী পরিদর্শক আয়াছ উদ্দীন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন তিনি হামলাকারী ট্র্কার চালকের বাড়ি গিয়ে তল্লাশি করেও তাকে পাননি। তবে তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও তিনি জানান।

এ দিকে রোববার গ্রাম্য কাঁচা রাস্তায় ট্রাক্টর দিয়ে ইট বালি পরিবহন তিনি করেননি। তার এক ছোট ভাই করছিলেন। এ নিয়ে সাংবাদিক ফটিকুল ইসলামের দুই ভাইর সাথে প্রথমে তর্কবিতর্ক হয়েছিল তার। পরে সাংবাদিক নিজে এসে তাকে [ট্রাক্টর চালক কাশেমকে] প্রহার করেছেন্ এ ক্ষোভেই সোমবার তিনি নিজে সাংবাদিক ফটিকুল ইসলামের উপর কাঠের টুকেরা দিয়ে আঘাত করেছেন মাত্র। এ ঘটনায় কমলগঞ্জ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *