সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৭
Home » জাতীয় » কুলাউড়ায় শিক্ষকের উপর হামলার ঘটনায় বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি শ্রীঘরে

কুলাউড়ায় শিক্ষকের উপর হামলার ঘটনায় বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি শ্রীঘরে

এইবেলা, কুলাউড়া, ১৭ সেপ্টেম্বর ::

কুলাউড়া উপজেলার জয়চন্ডী ইউনিয়নের মীরশংকর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মো. সাখাওয়াত আলী (৪০) এর উপর বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে গত শনিবার হামলা চালান সাবেক সভাপতি। আহত শিক্ষক কুলাউড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদিকে রাতে ঘটনার সাথে জড়িত বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি আখদ্দছ আলীকে রাতেই পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

আহত শিক্ষক সাখাওয়াত আলী জানান, মীরশংকর বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ছিলেন গৌরীশংকর গ্রামের বাসিন্দা আখদ্দছ আলী। তখন বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর নির্মাণের জন্য স্থানীয় এক প্রবাসী সাবেক সভাপতি আখদ্দছ আলীর কাছে আড়াই হাজার টাকা অনুদান দিয়েছিলেন। সম্প্রতি বিদ্যালয়ের নতুন কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হন ওই এলাকার বাহুল উদ্দিন। সাবেক সভাপতি আখদ্দছ আলী অনুদানের টাকা নতুন কমিটির কাছে হস্তান্তর করেননি। বর্তমান কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, শনিবার সকালের দিকে বিদ্যালয়ের ভূমি দাতা আবদুল হক অনুদানের টাকা ফিরিয়ে আনতে আখদ্দছ আলীর বাড়িতে যান। কিন্তু, তিনি টাকা না দিয়ে দুপুর আড়াইটার দিকে বিদ্যালয়ে আসেন এবং প্রধান শিক্ষকের কক্ষে ঢুকে সহকারী শিক্ষক ও কমিটির শিক্ষক প্রতিনিধি মো. সাখাওয়াত আলীকে পেয়ে যান।

এ সময় অনুদানের টাকা নিয়ে দু’জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে আখদ্দছ আলী শিক্ষক মো. সাখাওয়াত আলীকে কিল-ঘুষি মারতে থাকেন। পরে ভূমিদাতা ও অন্যান্য শিক্ষক ছুটে এসে আখদ্দছকে নিবৃত্ত করেন। পরে শিক্ষক সাখাওয়াতকে কুলাউড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এঘটনায় শিক্ষকের ভাই সিরাজুল ইসলাম কুলাউড়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তাহমিনা জাহান জানান, আমাদের সামনেই একজন সাবেক সভাপতি শিক্ষকের উপর চড়াও হন। কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের সামনে এধরনের ঘটনা খুবই দুঃখজনক।

অভিযোগ সম্পর্কে সাবেক সভাপতি আখদ্দছ আলী জানান, অনুদানের বিষয়টি নিয়া দু’জনের মধ্যে একটু কথাকাটাকাটি হয়েছে। শিক্ষক সাখাওয়াত ছেলের বয়সী হয়ে আমার সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছে।

কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শামীম মুসা জানান, শিক্ষকের উপর হামলার ঘটনায় আখদ্দছ আলীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।#