জুন ২৪, ২০১৫
Home » জাতীয় » সুনামগঞ্জে মেয়ের আইডি কার্ডে মায়ের বিয়ে: জুতাপেটা

সুনামগঞ্জে মেয়ের আইডি কার্ডে মায়ের বিয়ে: জুতাপেটা

এইবেলা, সুনামগঞ্জ, ২৪ জুন:
সুনামগঞ্জ জেলার বিশ্বম্ভরপুরে নিজের মেয়ের ভোটার আইডি কার্ডের পরিচয় ব্যবহার করে এক গৃহবধূ তার ছেলের বয়সী এক ব্যক্তিকে বিয়ে করেছেন। এঘটনায় মঙ্গলবার রাতে গ্রাম্য সালিশে নববিবাহিত স্বামী ও স্ত্রীকে জরিমানা করাসহ প্রকাশ্যে জুতাপেটা করা হয়েছে।
এলাকাবাসী জানায়,উপজেলার ধনপুর ইউনিয়নের ছাতারকোনা গ্রামের ছিদ্দিকুর রহমানের ছেলে জুনায়েদ মিয়া (২০) এর সঙ্গে পার্শ্ববর্তী সলুকাবাদ ইউনিয়নের সাইদুল ইসলামের স্ত্রী দুই সন্তানের জননী গৃহবধূ রুপীয়া বেগম (৪০)-এর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। তারই সূত্রধরে ২৩ ফেব্রুয়ারি গৃহবধূ রুপীয়া বেগম তার নিজের পরিচয় গোপন রেখে তার মেয়ের ভোটার আইডি কার্ডের বয়স,নাম ও পরিচয় ব্যবহার করে সুনামগঞ্জ নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে প্রেমিক জুনায়েদ মিয়াকে বিয়ে করেন। এতদিন তাদের বিয়ের বিষয়টি গোপন থাকলেও সম্প্রতি তা জানাজানি হলে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। এ ঘটনার প্রেক্ষিতে সুলকাবাদ ইউনিয়ন চেয়ারম্যান তানজিমা মাহজেবীনের স্বামী তোফায়েল হোসেন লিটন সালিশ ডেকে উপস্থিত জনতার সামনে নববিবাহিত স্বামী ও স্ত্রীকে ১০টা করে জুতাপেটা করেন। সেই সঙ্গে স্বামী জুনায়েদ মিয়াকে ৫০হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়।
এ ব্যাপারে বিশ্বম্ভরপুর থানার ওসি শহিদুজ্জামান বলেন, সালিশের বিষয়টি আমাকে জানানো হয়নি, গোপনে শেষ করা হয়েছে।
উপজেলার সুলকাবাদ ইউনিয়ন চেয়ারম্যান তানজিমা মাহজেবীন এইবেলাকে এঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমি সময় মতো সালিশে উপস্থিত হতে পারিনি বলে আমার স্বামী সালিশের কাজটি সম্পন্ন করেছেন। এঘটনায় পুরো উপজেলায় ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে।
রিপোর্ট-সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি