জানুয়ারি ১৫, ২০১৮
Home » ব্রেকিং নিউজ » কুলাউড়ায় একাধিক মিথ্যে মামলা দিয়ে হয়রানি : প্রতিকার চেয়ে স্মারকলিপি

কুলাউড়ায় একাধিক মিথ্যে মামলা দিয়ে হয়রানি : প্রতিকার চেয়ে স্মারকলিপি

এইবেলা, কুলাউড়া, ১৫ জানুয়ারি ::

কুলাউড়ার ঘাগটিয়া গ্রামের ঠিকাদার আব্দুল হামিদের নামে বিভিন্ন মিথ্যে মামলা দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে পুলিশ সুপার, মৌলভীবাজারসহ বিভিন্ন মহলে স্মারকলিপি প্রদান করে প্রতিকার চাওয়া হয়েছে।

আবেদন সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার ঘাগটিয়া গ্রামের বিশিষ্ট ঠিকাদার মো:আব্দুল হামিদ,তার চাচাতো ভাই আং গনিসহ তার নিকটাত্মীয় কয়েকজনকে গত বছরের ৫ সেপ্টেম্বর সন্ত্রাসীরা অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। এ ঘটনায় দানাপুর গ্রামের মতই বখসসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মৌলভীবাজার আদালতে মামলা করা হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মতই বখস সম্পূর্ন মিথ্যে ঘটনা সাজিয়ে আং হামিদ, আং রউফ, আং গনিদের বিরুদ্ধে পৃথক পৃথক কয়েকটি মামলা দায়ের করে হয়রানির চেষ্টা করেন। মিথ্যে মামলা থেকে পরিত্রান পেতে এবং মিথ্যে অভিযোগ দায়েরকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়ে একটি লিখিত আবেদন মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার করেন আং হামিদ। যার অনুলিপি উপজেলা নির্বাহী অফিসার কুলাউড়া, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কুলাউড়া সার্কেল ও কুলাউড়া থানার ওসি বরাবরে দেয়া হয়েছে।

আব্দুল হামিদ জানান, আমিসহ আমার নিকটাত্মীয়দের ওপর হামলাকারীরা ঘটনা থেকে রেহাই পেতে আমাদের বিরুদ্ধে একাধিক মিথ্যে মামলা কোর্টে করা হয়েছে। অভিযোগ যে মিথ্যে তা তদন্তে প্রমানিত হবে। এলাকাবাসী ও উপজেলা চেয়ারম্যানসহ সকলেই অবগত আছেন। আমি এর প্রতিকার চাই।

এব্যাপারে কুলাউড়া থানার ওসি (তদন্ত) বিনয় ভূষন রায় জানান, কারও বিরুদ্ধে যে কেউ অভিযোগ করতে পারে। কিন্তু পুলিশ সত্য মিথ্যে যাচাই করার পর আদালতে রিপোর্ট দাখিল করবে। কোন মিথ্যে তথ্য দিয়ে কারও ক্ষতি করার সুযোগ নেই।

এ ব্যাপারে কুলাউড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু ইউসুফ জানান,আব্দুল হামিদের লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।#