এপ্রিল ১৫, ২০১৮
Home » বিনোদন » ওসমানীনগরে উপজেলা প্রশাসনের বর্ষবরণ

ওসমানীনগরে উপজেলা প্রশাসনের বর্ষবরণ

 

এইবেলা, ওসমানীনগর (সিলেট), ১৫ এপ্রিল ::

সিলেটের ওসমানীনগরে নানা অনুষ্ঠান মালার মধ্য দিয়ে বর্ষবরণ করেছে উপজেলা প্রশাসন। পহেলা বৈশাখ সকাল দশটায় উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গন থেকে মঙ্গল শোভাযাত্রার মাধ্যমে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের সুচনা হয়। শোভাযাত্রাটি সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের উপর দিয়ে পদক্ষিণ করে লালকৈলাশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামন থেকে ঘুরে পুনরায় উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে এসে শেষ হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনিছুর রহমানের নেতৃত্বে বর্ষবরণ মঙ্গল শোভাযাত্রায় অংশ গ্রহন করেন, ওসি মোহাম্মদ সহিদ উল্যা, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আতাউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান চৌধুরী নাজলু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জেলা আ’লীগের সদস্য আবদাল মিয়া, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আফতাব আহমদ, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি আবুল লেইছ, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আনা মিয়া, উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জুবেল আহমদ সেকেল, যুক্তরাজ্য স্বোচ্ছাসেবকলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অরুনোদয় পাল ঝলক, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহ্বায়ক চঞ্চল পাল, উপজেলা স্কাউট কমিশনার নজরুল ইসলাম সহ উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠনের নেতা কর্মি,বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষার্থী বৃন্দ। উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জুবেল আহমদ সেকেল ও কন্ঠ শিল্পী ডিকে জয়ন্তের যৌথ সঞ্চালনায় সকাল ১১টা থেকে শুরু হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সমবেত কন্ঠে “এসো হে বৈশাখ এসো এসো” গানের মধ্য দিয়ে শুরু হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এর পর “মেলায় যাইরে মেলায় যাইরে” তাকডুম তাকডুম বাজে বাংলাদেশের ডোল” লোকগীতি, শাহ আব্দুল করিম, হাসনরাজার গান সহ বিভিন্ন ধরণের গানের সুরে বিকেল তিনটা পর্যন্ত ডুবে থাকের এলাকার সংগীত পিপাসু জনতা। বৈশাখী উদযাপন উপলক্ষে কয়েকটি স্টল নিয়ে আয়োজন করা হয় বৈশাখী মেলার। নানা ধরণের পিঠাপুলি, বাংলার ঐতিহ্যবাহী পণ্যের স্টলগুলোতে দর্শনার্থীদের উপছেপড়া ভীড় মেলাকে আরো প্রাণবন্ত করে তুলে। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে স্বস্ত্রীক যোগদান করেন ওসমানীগর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সাইফুল ইসলাম সহ প্রশাসনের বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তাদের সহধর্মীনি ও তাদের পরিবারের সদস্যরা।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের এক ফাঁকে পান্তা, মাছ ভাজা, পাটের শাখ কয়েক ধরণের ভর্তা দিয়ে অনুষ্ঠানে আগত অতিথিরা করেন মধ্যহ্ন ভোজ। বিকেল তিনটায় উপজেল নির্বাহী কর্মকর্তা ও ওসি মোহাম্মদ সহিদ উল্যার সমাপনী বক্তব্যের মধ্য দিয়ে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।#