- জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, স্থানীয়, স্লাইডার

কমলগঞ্জে শুদ্ধস্বরে জাতীয় সংগীত পরিবেশনে প্রশিক্ষণ কর্মশালা

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, কমলগঞ্জ, ১৯ এপ্রিল ::

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে জাতীয় সংগীত শুদ্ধস্বরে পরিবেশন হচ্ছে না শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে এ চিন্তাভাবনায় উপজেলা প্রশাসন একটি সুনির্দিষ্টভাবে প্রকল্প গ্রহন করা হয়। কমলগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দুইজন প্রশিক্ষক নিয়োগ দিয়ে প্রাথমিকভাবে উপজেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহন করেন। বৃহস্পতিবার ১৯ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১১টায় কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে কমলগঞ্জ পৌরসভা এলাকার ১২টি প্রাথমকি বিদ্যালয়ের ১০৮ জন শিক্ষার্থীর অংশ গ্রহনে প্রধান অতিথি কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হকসহ অতিথিরা গেয়ে শুদ্ধস্বরে জাতীয় সংগীত পরিবেশন কর্মশালা-২০১৮-এর উদ্বোধন করেন।

কমলগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো: মোশারফ হোসেনের সভাপতিত্বে ও প্রধান শিক্ষক মোশাহিদ আলীর সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো: জুয়েল আহমদ, কমলগঞ্জ টিচার্স কালচারাল ক্লাবের আহ্বায়ক সাজ্জাদুল হক, কমলগঞ্জ মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক গাজী মো: সালাহ উদ্দীন ও সাংবাদিক মুজিবুর রহমান।

জানা যায়,কমলগঞ্জের জেবুননেসা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক তপন দাস ও করিমপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা মুক্তা দে-কে প্রশিক্ষক হিসাবে নিয়োগ দিয়ে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত কমলগঞ্জ পৌরসভা এলাকার ১২টি প্রাথমকি বিদ্যালয় থেকে ৯জন করে বাছাইকৃত মোট ১০৮ জন শিক্ষার্থীকে শুদ্ধস্বরে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।
প্রশিক্ষক তপন দাস বলেন, এমনিতেই সবগুলো বিদ্যালয়ে ক্লাস শুরুর আগে পিটির সময় জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয়। তবে জাতীয় সংগীতের তাল লয় মিলিয়ে শুদ্ধভাবে পরিবেশন হচ্ছিল না।

কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উদ্যোগে সুনির্দিষ্ট প্রকল্পের মাধ্যমে আজ (বৃহস্পতিবার) থেকে কমলগঞ্জে শুদ্ধস্বরে জাতীয় সংগীত পরিবেশন প্রশিক্ষণ শুরু হলো। তিনি মনে করেন শুধু জাতীয় সংগীত শুদ্ধস্বরে পরিবেশন নয় এর মাধ্যমে দেশের প্রতিও সঠিকভাবে সম্মান জানানো হয়।

কমলগঞ্জ উপজেলা কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাহমুদুল হক বলেন, তিনি বিদ্যালয় পরিদর্শনকালে দেখেছেন জাতীয় সংগীত পরিবেশনকালে শুদ্ধতার অভাব রয়েছে। তাই তিনি উপজেলা পরিষদে এ বিষয়টি প্রস্তাব আকারে উপস্থাপন করে ৫৫ হাজার টাকার একটি ক্ষুদ্র প্রকল্প গ্রহণ করে শুদ্ধস্বরে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের প্রশিক্ষণ কর্মশালা শুরু করেছেন।

বৃহস্পতিবার কমলগঞ্জ পৌরসভার ১২টি বিদ্যালয়ের ১০৮ জন শিক্ষার্থীর অংশ গ্রহনে এ কর্মশালা শুরু হলেও পর্যায়ক্রমে উপজেলার ১৫২ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, এ উদ্যোগে সবগুলো বিদ্যালয়ের শিক্ষক, ছাত্র, অভিভাবক, জনপ্রতিনিধি ও এলাকাবাসীর কাছ থেকে ব্যাপক সাড়া পাওয়া গেছে।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *