- খেলা

তামিম-সৌমের দৃঢ়তায় দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজ জয়ের পথে টাইগাররা

এইবেলা, স্পোর্টস  ১৫ জুলাই :-
বাংলাদেশের দুর্দান্ত বোলিং এবং টাইট ফিল্ডিংয়ে ৪০ ওভার শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৬৮ রান সংগ্রহ করেছে প্রোটিয়ারা। বৃষ্টি আইন অনুসারে বাংলাদেশকে তারা ১৭০ রানের টার্গেট দিয়েছে। হ্যাটট্রিক শিরোপা জয়ের জন্য টাইগারদের ২৪০ বলে এই টার্গেট পূর্ন করতে হবে ওভার প্রতি ৪.২৫ রান। তামিম-সৌম্যের দৃঢ়তায়  আরেকটি ওয়ানডে সিরিজ জয়ের পথে এগিয়ে যাচ্ছে টাইগাররা। অবিচ্ছিন্ন শতরানের জুটি সেপথেই এগিয়ে যাচ্ছে। সৌম্য সরকার একমাত্র বাংলাদেশী ‍যিনি দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টানা দুই ম্যাচে ফিফটি করার রেকর্ড গড়েছেন।
এর আগে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে টস জিতে ব্যাট করতে নামে দক্ষিণ আফ্রিকা। ওপেনিং জুটিতে বেশ ধীরস্থির সূচনা করার চেষ্টা করেন ডি কক ও হাশিম আমলা। কিন্তু তা আর হয়ে ওঠেনি। বাংলাদেশের পক্ষে এদিনও প্রথম উইকেট শিকার করেন মুস্তাফিজুর রহমান। নিজের দ্বিতীয় ওভারের দ্বিতীয় বলেই দারুণ এক কাটারে কুইন্টন ডি কককে বোল্ড আউট করে প্যাভিলিয়নের পথ দেখিয়েছেন এই তরুণ টাইগার সেনসেশন। এ ছাড়াও উইকেট পেয়েছেন সাকিব, মাশরাফি, রুবেল ও মাহমুদুল্লাহ। বাংলাদেশের হয়ে ২০০ উইকেট শিকারিদের ক্লাবে প্রবেশ করলেন ক্রিকেটের সকল ফর্মে শীর্ষে থাকা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান এবং অধিনায়ক মাশরাফি।
সকাল থেকে চট্টগ্রামের আকাশে মেঘ থাকায় ম্যাচটি মাঠে গড়ানো নিয়ে কিছুটা হলেও সংশয় তৈরি হয়েছিল। তবে ঠিক সময়েই টস অনুষ্ঠিত হয়। ব্যাটিংয়ে নেমে টাইগারদের বোলিং ফিল্ডিংয়ের চমৎকার যোগসূত্রের কারণে শুরুতেই ব্যর্থ হয় দক্ষিণ আফ্রিকার টপ অর্ডার। বৃষ্টি শেষে ওভার কমে আসলে সেই সুযোগটিকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করে দক্ষিণ আফ্রিকা। ফলে এ সময় রানার চাকা সচল করেন মিলার ও ডুমিনি। দলীয় ১১৩ রানে ডেভিট মিলারকে ক্যারিয়ারের ২০০ তম শিকারে পরিণত করেন মাশরাফি। এরপর এককভাবে দলীয় স্কোর এগিয়ে নেন ডুমিনি। ম্যাচের শেষ বলে ক্যাচ আউট হন তিনি।
উল্লেখ্য, ম্যাচে কোন পরিবর্তন নেই টাইগার স্কোয়াডে। আগের ম্যাচে জয় পাওয়া একাদশ নিয়েই মাঠে নামছে মাশরাফিবাহিনী।
অপরদিকে প্রোটিয়া দলে একটি পরিবর্তন আনা হয়েছে। দলে ঢুকেছেন দীর্ঘদেহী পেসার মরনে মরকেল। তাকে জায়গা দিতে ছিটকে গেছেন ক্রিস মরিস।
১-১ এ সমতায় থাকা সিরিজের এই ম্যাচে জয়ের জন্য মরিয়া দু’দলই। একদিকে বাংলার বাঘদের ইতিহাস সৃষ্টির মহেন্দ্রক্ষণ। অন্যদিকে আফ্রিকার সিংহদের সম্মান বাঁচানোর লড়াই। যারাই জিতবে শিরোপা উঠবে তাদের হাতে।
এদিকে পাকিস্তান-ভারতের পর এবার দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষেও সিরিজ জয়ের জন্য প্রহর গুনছেন টাইগার সমর্থকরা। #

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *