- অর্থ ও বাণিজ্য, জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, শিক্ষাঙ্গন, স্থানীয়, স্লাইডার

কুলাউড়ায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উপবৃত্তির টাকা নিয়ে বিপাকে অভিভাবকরা

শিওর ক্যাশ এজেন্টদের বিরুদ্ধে অভিযোগ-

এইবেলা, কুলাউড়া , ০৯ জুলাই ::

কুলাউড়া উপজেলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উপবৃত্তির টাকা উত্তোলন নিয়ে বিপাকে পড়েছেন অভিভাবকরা। শিওর ক্যাশের মাধ্যমে এই অভিভাবকদের মোবাইল নাম্বারে পাঠানো টাকা উত্তোলনে যত ঝামেলা। এজেন্টরা ২০-৩০ টাকা কেটে নিচ্ছে। নতুবা টাকা গ্রাহকদের দিতে গড়িমসির অভিযোগ পাওয়া গেছে।

প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সুত্রে জানা যায়, কুলাউড়া উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা মিলিয়ে ১৯৮ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২৮ হাজার ৯শ ২৮ জন শিক্ষার্থীকে দেয়া হয় উপবৃত্তির টাকা। জুলাই-১৭ হতে ডিসেম্বর ১৭ এই ৬মাসের উপবৃত্তির টাকা পেয়েছেন শিক্ষার্থীরা। এই টাকা মোবাইল থেকে ক্যাশ করতে গিয়ে নানামুখি ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে অভিভাবকদের। কোন ধরনের মনিটরিং বা শাস্তির ব্যবস্থা না থাকায় শিওর ক্যাশ এজেন্টরা অভিভাবকদের সাথে অশালীন ও তাচ্ছিল্য ব্যবহারের অভিযোগ করেন অভিভাবকরা।

উপজেলার প্রত্যন্ত ইউনিয়ন থেকে কুলাউড়া শহরে এসে অনেক অভিভাবককে টাকা ক্যাশ করতে হয়। এতে অভিভাবকদের ভাড়া বাবত ৩০ থেকে ৬০ টাকা খরচ হয়। ক্ষুব্ধ অভিভাবকরা জানান, খরচ হোক তাতে কোন সমস্যা নেই। শিওর ক্যাশ এজেন্টরা ২০-৩০ টাকা খরচ বলে অভিভাবকদের কাছ থেকে বাধ্য করে রাখে। এটা টাকা ক্যাশ করার আগে অভিভাবকদের জানায় এজেন্টরা। এতে কোন অভিভাবক রাজি না হলে টাকা ক্যাশ করে দেয়না এজেন্টরা। আবার পরিচিত অভিভাবকদের কাছ থেকে টাকা নিতে না পারলে বলেন, নেটে ঝামেলা করছে। এছাড়া অনেকেই এজেন্ট ছেড়ে দেয়ায় নতুন এজেন্ট খুঁজে বের করতে অভিভাবকদের বেগ পেতে হচ্ছে।

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকরা জানান, উপজেলার প্রায় সবক’টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অভিভাবকরা একই অভিযোগ করছেন। কিন্তু শিওর ক্যাশ এজেন্টদের দৌরাত্ম্য রোধে তারা কোন সহযোগিতা করতে পারছেন না।

এ ব্যাপারে কুলাউড়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. আইয়ুব উদ্দিন জানান, বিষয়টা শিওর ক্যাশের। তাই কিছু বলা যাচ্ছেনা। তবুও তাদের সাথে আলোচনা করে কিভাবে অভিভাবকরা সহজে টাকা পেতে পারে সে ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহণের চেষ্টা করছে।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *