- জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, স্থানীয়, স্লাইডার

কুলাউড়ার ভাটেরাবাসী সিপারের যেসব কর্মকান্ডে বিক্ষুব্ধ

এইবেলা, কুলাউড়া, ২৯ জুলাই ::

কুলাউড়া উপজেলার ভাটেরা স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদের নানা অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারি কর্মকান্ডে অতিষ্ঠ ভাটেরাবাসী। ইউনিয়নের সর্বস্তরের লোকজন শনিবার ২৮ জুলাই ইউনিয়নে এক প্রতিবাদ সভা করে অধ্যক্ষের অনিয়ম ও দুর্নীতি বের করে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের কাছে রিপোর্ট দিতে ৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে।

স্থানীয় লোকজন জানান, ভাটেরা ইউনিয়নে শনিবার ৪টি বিষয় নিয়ে এলাকাবাসী সভা করে। এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো ভাটেরা স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদের নানা অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনা, স্কুল এন্ড কলেজর শিক্ষার্থীদের আসা যাওয়ার পথে রেললাইনের কাছে বখাটেদের উৎপাত, গরু চুরি বৃদ্ধি এবং মাদক।

ভাটেরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ একেএম নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন ভাটেরা ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি আকমল হোসেন, সাবেক সভাপতি শাহ আজিজুর রহমান পারুল, ইউপি সদস্য হাজী উস্তার আলী ও দেলোয়ার হোসেন রিপন, স্কুল এন্ড কলেজ গভর্নিং বডির সদস্য সিরাজুল ইসলাম, হাজী সফর উদ্দিন, হাজী মর্তুজ আলী সিদ্দিকী ও ছাত্রলীগ সভাপতি সুমন আহমদ তালুকদার প্রমুখ।

সভায় ভাটেরা স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদ ক্ষমতাসীন দলের নেতা হওয়ায় প্রতিষ্ঠানে যান ইচ্ছামাফিক। তার যোগদানের পর থেকে এসএসসি ও এইচএসসির ফলাফলে বিপর্যয় নেমেছে। সামান্য বিষয় নিয়ে উস্কানী দিয়ে শিক্ষার্থীদের ব্যবহার করা। রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে গভর্নিং বডি ছাড়া একক সিদ্ধান্ত কলেজের কর্মকান্ড পরিচালনা। শিক্ষার্থীদের রাজনৈতিক কর্মকান্ডে ব্যবহার এবং কলেজের ভেতরে রাজনৈতিক কর্মকান্ড পরিচালনা করেন। ফলে ভাটেরা স্কুল এন্ড কলেজের সুণ্ঠু শিক্ষার পরিবেশ বিঘ্নিত হচ্ছে। শিক্ষার্থীরাও আগ্রহ হারাচ্ছে প্রতিষ্ঠানের প্রতি। গোটা প্রতিষ্ঠান যেন তার রাজনৈতিক আড্ডাখানায় পরিণত হয়েছে। শিক্ষকরাও বিক্ষুব্ধ তার আচরণে।

এসব কর্মকান্ডের সার্বিক চিত্র তুলে প্রশাসনের কাছে রিপোর্ট প্রদানের জন্য এবং অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে ব্যবস্তা গ্রহণের জন্য ৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির সদস্যরা হলেন- সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড সদস্য উস্তার আলী তালুকদার, শাহ আজিজুর রহমান পারুল, আকমল হোসেন, হাজী মুর্তুজ আলী সিদ্দিকী ও হাজী সফর উদ্দিন।

ভাটেরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ একেএম নজরুল ইসলাম সভার সত্যতা স্বীকার করে জানান, তদন্ত কমিটি অধ্যক্ষের এসব অনৈতিক কর্মকান্ড তদন্ত করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের নিকট জমা দিবে। তারপরও অধ্যক্ষ নিজ কর্মকান্ডে সতর্ক না হলে কঠোরভাবে ভাটেরাবাসী তাকে দমন করবে। সর্বোপরি ভাটেরার সর্বোচ্চ ও সর্ববৃহৎ এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি এতিহ্য রক্ষায় সকলে একমত পোষণ করেন।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *