সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৮
Home » জাতীয় » জুড়ীতে আটক ৭ জুয়াড়ীকে উৎকোচের বিনিময়ে ছেড়ে দিলেন এসআই আশরাফুল

জুড়ীতে আটক ৭ জুয়াড়ীকে উৎকোচের বিনিময়ে ছেড়ে দিলেন এসআই আশরাফুল

এইবেলা, বড়লেখা, ২৬ সেপ্টেম্বর ::

মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলায় আটক ৭ জুয়াড়ীকে বড় অংকের উৎকোচের বিনিময়ে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাতে জনতার সহযোগীতায় আটক ওই ৭ জুয়াড়িকে জুড়ী থানার এসআই আশরাফুল বড় অংকের টাকা নিয়ে ছেড়ে দিয়েছেন। এ ঘটনায় পুরো এলাকা জুড়ে চলছে তোলপাড়।

প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার রাতে জায়ফরনগর ইউপির মনতৈল গ্রামের হযরত জবেদ আলী শাহ (রা.) এর মাজারের পাশের আলী আকবরের ছেলে আক্কাস মিয়ার বাড়িতে একদল জুয়াড়ী জুয়া খেলছিল। স্থানীয় জনতা টের পেয়ে বিষয়টি পুলিশকে জানায়। রাত আনুমানিক ২টার সময় জুড়ী থানার এসআই আশরাফুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে জুয়ার বোর্ডের মালিক আক্কাস মিয়া, জুয়াড়ী এরশাদ মিয়া, হাবিকুর মিয়া, আব্দুল হান্নান, মিরজান আলী ও রফিক মিয়াকে স্থানীয়দের সহযোগীতায় আটক করা হয়। এসময় জুয়াড়ী রেজু মিয়া পালানোর চেষ্টা চালালে জনতা তাকেও আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।

এসআই আশরাফুল ইসলাম আটক ৭ জুয়াড়ীকে ঘটনাস্থল থেকে অটোরিকশায় তুলে থানার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। কিন্তু রহস্যজনক কারণে তিনি আটক জুয়াড়ীদের কামিনীগঞ্জ বাজারে নিয়ে ছেড়ে দেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয়রা জানান, ১ লাখ টাকার বিনিময়ে এসআই আশরাফুল ইসলাম আটক এ ৭ জুয়াড়ীকে পথিমধ্যেই ছেড়ে দিয়েছেন।

এসআই আশরাফুল ইসলাম উৎকোচের বিনিময়ে জুয়াড়ী ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, আটককৃতরা বড় কোন জুয়াড়ী নয়। তাছাড়া স্থানীয় এক জনপ্রতিধি তাদের পক্ষে সুপারিশ করায় তিনি তাদেরকে ছেড়ে দিয়েছেন। তবে তিনি সেই জনপ্রতিনিধির নাম বলতে অনিহা প্রকাশ করেন।#