- জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, রাজনীতি, স্থানীয়, স্লাইডার

মৌলভীবাজার -০২ কুলাউড়া- নৌকার কান্ডারি হওয়ায় এমএম শাহীনের বাসায় মানুষের ভীড়

এইবেলা, কুলাউড়া, ৩০ নভেম্বর ::

মৌলভীবাজার -০২ কুলাউড়া আসন থেকে যুক্তফ্রন্ট (বিকল্পধারা) এর প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতিকে নির্বাচনে লড়বেন সাবেক এমপি এমএম শাহীন। ২৮ নভেম্বর মনোনয়ন জমা দানের পর থেকে উনার নিজ বাসায় সাধারণ মানুষের উপচে পড়া ভীড় দেখা যাচ্ছে। কেউ কেউ ফুল নিয়ে আবার কেউবা এসে জড়িয়ে ধরে আনন্দে কান্না জুড়েন।

সাবেক এমপি এমএম শাহীন ২০০১ সালে ডাকসুর সাবেক ভিপি ও সাবেক এমপি সুলতান মো. মনসুরকে একজন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে পরাজিত করে সারাদেশে চমক সৃষ্টি করেন। এর আগে ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি ধানের শীষ প্রতিকে একদলীয় নির্বাচনে ৩মাসের জন্য এমপি নির্বাচিত হন। যদিও স্বাধীনতার পর থেকে অদ্যাবধি মৌলভীবাজার -০২ আসনে ধানের শীষের কোন এমপি নির্বাচিত হতে পারেননি। ২০০৫ সালের ডিসেম্বর মাসে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া কুলাউড়া এসে তাকে বিএনপিতে যোগদান করান। ওয়ান ইলেভেনে বিতর্কিত কর্মকান্ডে বিএনপিতে ফেরা হয়নি। যদিও তিনি মনেপ্রাণে বিএনপির রাজনীতি করতেন। সর্বশেষ ২০১৫ সালের ০৫ জানুয়ারি বিএনপির কালোপতাকা মিছিল কর্মসুচিতে অংশ নিয়ে পুলিশ অ্যাসল্ট মামলায় এক মাস কারাবরণ করেন। জেল থেকে বেরিয়ে চলে যান আমেরিকায়। সেখান থেকে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে দেশে ফিরে পুনরায় দলীয় হাল ধরেন। কিন্তু আওয়ামী লীগের সাবেক এমপি সুলতান মো. মনসুর ঐক্যফ্রন্টে যোগদান করায় ফের দলে উপেক্ষিত হন এমএম শাহীন।

১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন লাভের আশায় সাবেক রাষ্ট্রপতি বদরুদ্দোজা চৌধুরীর যুক্তফ্রন্ট তথা বিকল্প ধারায়। এদিকে কেন্দ্রিয় আওয়ামী লীগও সুলতান ঠেকাতে মৌলভীবাজার -০২ আসনটি ছাড় দেয় যুক্তফ্রন্ট তথা বিকল্পধারাকে। বিকল্পধারা হলেও এমএম শাহীন নির্বাচন করবেন দলীয় প্রতিকের পরিবর্তে নৌকা নিয়ে। ২০০১ সালের পর ২০০৮ সালে এই আসনে নৌকা প্রতিক দিলেও সুলতান মো. মনসুরের বিরোধিতার কারণে পরাজয় বরণ করতে হয় নৌকাকে। ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগ এই আসনটি তাদের শরিক জাতীয় পার্টিকে ছাড় দেয়। বলতে গেলে ১০ বছর পর এই আসনে এমএম শাহীন নৌকার কান্ডারি হওয়ায় দলীয় নেতাকর্মীরাও বেশ চাঙ্গা।

আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চ্যালেঞ্জকারী ঐক্যফ্রন্ট তথা গণফোরামের প্রার্থী সুলতান মো. মনসুরকে চ্যালেঞ্জ জানাতে প্রস্তুত নেতাকর্মীরা। তাই প্রতিদিন নৌকার কান্ডারি এমএম শাহীনের উত্তরবাজারস্থ বাসভবনে ভীড় করছেন। প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে নেতাকর্মীরা আসছেন। কেউ জড়িয়ে ধরে আবেগে কেঁদে ফেলছেন।

কুলাউড়া উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড মেম্বার খোকন জানান, এমএম শাহীন নৌকার কান্ডারি জেনে এক নজর দেখতে শতাধিক প্রবীণ মানুষ আগ্রহ প্রকাশ করে। আমি তাদের দু’টি বাস ভাড়া করে শাহীন ভাইর বাসায় নিয়ে আসি।

মৌলভীবাজার -০২ কুলাউড়া আসনে নৌকার কান্ডারি এমএম শাহীন জানান, এখানে নৌকা প্রতিক একটি বড় ফ্যাক্টর। তাছাড়া মানুষ শেখ হাসিনার উন্নয়নে মহাসড়কে শরিক হতে চায়। এটা মানুষের ভালোবাসার লক্ষণ। আশা করি মানুষ এবার বিপুল ভোটে নৌকাকে বিজয়ী করবে।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *