- জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, স্লাইডার

এসডিজি সম্পৃক্ত কার্যক্রমকে অগ্রাধিকার দিতে হবে- পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী

এইবেলা ডেস্ক ১১ফেব্রুয়ারি ::

একটি উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশ গঠনের জন্য টেকসই উন্নয়নের বিকল্প নেই। বর্তমান সরকার বাংলাদেশকে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশ ২০৪১ সালের মেধ্যে উন্নত দেশে পরিণত করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। কাজেই যে কোনো কার্যক্রম বাস্তবায়নের সময় এসডিজি’র সাথে সম্পৃক্ত বিষয়গুলোকে অগ্রাধিকার দেয়ার জন্য পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছেন পরিবশে, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন এমপি। ১২ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার দুপুরে আগারগাঁও পরিবেশ ভবনে পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের সাথে এক মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানকালে তিনি এসব কথা বলেন।

উল্লেখ্য পরিবেশ মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর আজ প্রথম তিনি পরিবেশ অধিদপ্তর পরিদর্শনে যান। এর আগে তিনি বন অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের সাথে অনুরূপ মত বিনিময় করেছিলেন। অনুষ্ঠানে পরিবেশ উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার এমপি এবং পরিবেশ সচিব আদুল্লাহ আল মোহসীন চৌধুরীসহ মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ এবং পরিবশে অধিদপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

কর্মকর্তা কর্মচারিগণের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, সারা দেশে যে সকল অবৈধ ইটভাটা রয়েছে সে সবের বিরুদ্ধে পর্যায়ক্রমে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। পরিবেশ নষ্ট করে কোনো শিল্প প্রতিষ্ঠান চলতে পারবে না। নদী খাল পুনরুদ্ধার করা হবে। এর মধ্যে কার্যক্রম শুরু হয়ে গেছে। সাভারে ট্যানারি শিল্পের মাধ্যমে পরিবেশ ও নদী দূষণের বিষয়টি এখনই বন্ধ করতে হবে। আমরা বিশ্বাস করি, উন্নয়ন যদি পরিবেশবান্ধব না হয় সেই উন্নয়ন দেশের জন্য কখনো মঙ্গল বয়ে আনতে পারে না। পরিবেশ দূষণকারী জনগণের বন্ধু হতে পারে না। সারা দেশে পরিবেশ অধিদপ্তরের অফিস এবং জনবল বৃদ্ধির জন্য খুব শীঘ্রই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি আরো বলেন, সারা দেশে দৃশ্যমান কার্যক্রমের মাধ্যমে জনগণের মধ্যে পরিবেশ সম্পর্কে সচেতনতা এমনভাবে তৈরি করতে হবে যেন কেউ ইচ্ছাকৃতভাবে পরিবেশ দূষণ না করে। আর যদি তা না হয় তাহলে আইনের কঠোর প্রয়োগের জন্য তিনি পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের নির্দেশ প্রদান করেন।

পরিবেশ উপমন্ত্রী বলেন, সারা বিশ্ব আজ পরিবেশ সম্পর্কে সোচ্চার। আমাদের দেশটা একসময় প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর ছিল। এখনো কোনো অংশে কম নয়। আমরা এখনো যদি পরিবেশ সম্পর্কে সচেতন না হই তাহলে আমাদের ভবিষ্যৎ খুব খারাপ হবে। আমরা তা কখনো হতে দিতে পারি না। অনুষ্ঠান শেষে মন্ত্রী, উপমন্ত্রী এবং সচিব পরিবেশ অধিদপ্তরের নব প্রতিষ্ঠিত পরীক্ষাগার পরিদর্শন করেন।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *