ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৯
Home » জাতীয় » কুলাউড়া হাসপাতালের এম্বুলেন্স চালকের বিরুদ্ধে শিশু নির্যাতনের অভিযোগ

কুলাউড়া হাসপাতালের এম্বুলেন্স চালকের বিরুদ্ধে শিশু নির্যাতনের অভিযোগ

এইবেলা, কুলাউড়া, ১৬ ফেব্রুয়ারি ::

কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এম্বুলেন্স চালক কাজল দেব এর বিরুদ্ধে পর পর দু’টি শিশু নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। নির্যাতনের স্বীকার দু’টি শিশুর পিতা-মাতা প্রতিকার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার কাছে পৃথক দু’টি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

শিশুর মাতা শিউলি বেগম তার অভিযোগে উল্লেখ করেন, গত ১২ ফেব্রুয়ারি বিকালে হাসপাতালের পুকুরপাড়ে গাছ থেকে বরই পাড়তে যায় তার ১০ বছরের ছেলে আসিফ মিয়া। এসময় আসিফের কোলে ৯মাস বয়সী ছোট সন্তান ছিলো। ছোট ছেলেকে নিচে বসিয়ে বরই গাছে উঠে আসিফ।

এমন সময় হাসপাতালের এম্বুলেন্স চালক কাজল দেব এসে ছোট শিশুকে পুকুরের পানিতে ফেলার ভয় দেখালে আসিফ গাছ থেকে দ্রুত নেমে আসে। তখন শিশু আসিফকে মারধর করে পানিতে ফেলে দেন এবং আর কোনদিন বরই পাড়তে আসলে প্রাণে মেরে ফেলবেন বলে হুমকি দেন কাজল দেব।

এদিকে গত ১৫দিন পূর্বে ঠিক একইভাবে হোসেন আহমদ নামক ১১বছরের অপর এক শিশুকেও নির্যাতন করেছেন এম্বুলেন্স চালক কাজল দেব। বিষয়টির প্রতিকার চেয়ে হোসেনের পিতা মো. আমিন গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ইউএনও এবং স্বাস্থ্য কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। হাসপাতালের গাছ থেকে বরই পাড়ার কারনে এম্বুলেন্স চালক কাজল দেব শিশু হোসেনকে মারধর করে মারাত্মক জখম করেছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করেন মো. আমিন।

নিজের বিরুদ্ধে আনীত এ অভিযোগটি সম্পুর্ন কাল্পনিক দাবী করে এম্বুলেন্স চালক কাজল দেব জানান, আমারও শিশু-সন্তান আছে, আমি তাদেরকে মারবো কেন। ১০-১২ জন হুরুতা (শিশু) কাচা বরই পাড়ছে দেখে আমি শুধু তাদেরকে ধমক দিয়ে তাড়িয়ে দিয়েছি। স্থানীয় এম্বুলেন্স চালকরা পরিকল্পিতভাবে আমার বিরুদ্ধে বিষয়টি রটাচ্ছে।

এব্যাপারে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নুরুল হক জানান, আশপাশের লোকজনের কাছ থেকে শিশু নির্যাতনের বিষয়টির সত্যতা পাওয়া গেছে। এম্বুলেন্স চালক কাজল দেবকে তলব করা হয়েছে। বিষয়টির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।