- বিনোদন, ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, স্থানীয়, স্লাইডার

কাল শ্রীমঙ্গলে উচ্ছ্বাস থিয়েটারের মঞ্চনাট্য উৎসব ২০১৯ শুরু

অনলাইন ডেস্ক, এইবেলা, ৩এপ্রিল::

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে উচ্ছ্বাস থিয়েটারের গৌরবের ২২ বছর পুর্তিতে  তিনদিন ব্যাপী মঞ্চনাট্য উৎসব ২০১৯ শুরু হচ্ছে কাল বৃহস্পতিবার, চলবে শনিবার পর্যন্ত ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় শহরের ভানুগাছ রোডস্থ মহসিন অডিটোরিয়ামে ৪ এপ্রিল বৃহস্পতিবার তিনদিন ব্যাপী এ নাট্য উৎসবের উদ্ভোধন করবেন বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কামাল বায়েজিদ।
“চলো সৃষ্টির উদয়াচলে” এই স্লোগানকে সামনে রেখে এ উৎসবের আয়োজন করছে উচ্ছ্বাস থিয়েটার।  ৪ এপ্রিল থেকে ৬ এপ্রিল পর্যন্ত প্রতিদিন সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় মঞ্চস্থ হবে নাটক।

উৎসবের প্রথম দিন বৃহস্পতিবারে মঞ্চস্থ হবে গোবিন্দ রায় সুমনের রচনা ও নির্দেশনায় উচ্ছ্বাস থিয়েটারের নাটক  ‘শঙ্খচিল,  দ্বিতীয় দিন শুক্রবার মঞ্চস্থ হবে মাইকেল মধুসূদন দত্তের রচনায় ও শুভাশিস সিনহ্‌া’র নির্দেশনায় মণিপুরি থিয়েটারের নাটক ‘কহে বীরাঙ্গনা ও তৃতীয় দিন শনিবার মঞ্চস্থ হবে আনন জামানের রচনায় ও শুদ্ধমান চৈতনের নির্দেশনায় বুনন থিয়েটারের নাটক ‘সিক্রেট অব হিস্ট্রি।

শঙ্খচিল নির্মাণ নিয়ে গোবিন্দ রায় সুমন এ প্রতিবেদককে বলেন, শিল্পের সকল শাখায় সম্পৃক্ত থেকে হেমাঙ্গ বিশ্বাসের জীবন ও মূল্যবোধকে ধারণ করে শঙ্খচিলের নির্মাণ। গণসংস্কৃতির শঙ্খচিল হেমাঙ্গ  বিশ্বাস স্পর্শ করেছেন এই ভূখ-ের অসংখ্য মানুষের হৃদয়, নানা ভাবে মানুষকে প্রাণিত করেছেন মানবিকতার দর্পণে। জীবন সংগ্রামী হেমাঙ্গ মানুষকে ছুঁয়ে নাটকিয়তার রসে আপনাতেই নাট্য চিন্তার এক ভূমি। ধুলো মাখা পথে সোনালী আলো যখন অবহেলা বৈষম্য আর নিগৃহিতের কান্নার শব্দে ভারী হয় তখন হেমের মনে নাচন ধরে। হেম তখন বিদ্রোহী হয়ে উঠে। শুধু নিরব বিলাপ নয় শ্রেণী সমাজে দারিদ্রের গর্ভে জন্ম নেওয়া প্রেম, প্রকৃতি, প্রণয় আর প্রতিবাদ সব কিছু কোথায় যেনো এক হয়ে মিশে গেছে নদী মাতৃক জরাভুমির ঢেউয়ের মিশ্রনে। অলিখিত নিয়মে গ্রাম্যতা আর গায়কী নিয়ে হেমের সুর ব্যাঙ্গ হয়েছে শোষণ ব্যবস্থার উপর। শোষিত শ্রমজীবী মানুষের বন্ধুত্ব আর ভালোবাসায় হেমাঙ্গ সূর্য চিন্তায় আরোহন করবেন নয়তো ধূলি হয়ে মাটিতে মিশে যাবেন, এরকম চিন্তায় নাটক চলে নাটকের পথে। নাটকে গল্প বলার আবেগ, কল্পনা, বাস্তবতা, অলঙ্কার রচনা আর  প্রয়োগে অনেক ভাবনার অবতারণা চলে। বিভাজন আর সীমাবদ্ধতার  গন্ডি পেরিয়ে নাটকে আমাদের নিরিক্ষা চলমান। মঞ্চে দর্শকদের আমরা বুদ্ধিমান ও সচেতন হিসেবে শ্রদ্ধা করি। তাই এই নাটক নিয়ে ভাবনার অধিকার প্রত্যেকের নিকট নিবেদন করলাম। এছাড়াও আগামী ৬ এপ্রিল সন্ধ্যায় থাকবে প্রতি বছরের ন্যায় নাট্য শিল্পের বিকাশে উচ্ছ্বাস – ভুলু সম্মাননা পদক ২০১৯।

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *