মে ২, ২০১৯
Home » বিনোদন » কমলগঞ্জে ৫ দিনব্যাপী মণিপুরী “লাই-হারাওবা” উৎসব সমাপ্ত

কমলগঞ্জে ৫ দিনব্যাপী মণিপুরী “লাই-হারাওবা” উৎসব সমাপ্ত

এইবেলা, কমলগঞ্জ, ০২ মে ::

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের কোনাগাঁও গ্রামে “উজাও- লাইরেম্বী লাইশং” মন্দির প্রাঙ্গণে গত ২৭ এপ্রিল থেকে শুরু হাওয়া পাঁচ দিনব্যাপী মীতৈ মণিপুরী নৃ-গোষ্ঠীর অতি প্রাচীনতম ধর্মীয় অনুষ্ঠান ‘লাই-হারাওবা বা “ঈশ্বরের উপাসনা” উৎসব বুধবার (১ মে) রাতে সমাপ্ত হয়েছে।

এ উৎসবে মণিপুরীদের ধর্মীয় প্রথা অনুযায়ী প্রতিদিন মাইবা (দেবদাস), মাইবীরা (দেবদাসী) এবং তাদের সহযোগীরা ঐশ্বরীক বাণীসহ লোকগান, লোকনৃত্য ও ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান পরিবেশনের মাধ্যমে, আতিয়া সিদবা বা দেবতাদের ইচ্ছা অনুসারে এই মহাবিশ্বের সৃষ্টি এবং উদ্ভিদ ও প্রাণিগুলির বিবর্তনের গল্প উপস্থাপন করা হয়।

স্থানীয় উদয়ন সংঘের আয়োজনে গত ২৭ এপ্রিল শনিবার এ উৎসবে ভারত ও বাংলাদেশের জ্ঞানী গুণী ব্যক্তিবর্গসহ সিলেট বিভাগের বিভিন্ন জেলা উপজেলা থেকে কয়েক হাজার ভক্তের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠানটি শুরু হয়েছিল।

মণিপুরীদের বিশ্বাস- প্রতি বছর গ্রীষ্মকালীন পর্বের আগমনের সময় ঈশ্বর কর্তৃক মানুষের শান্তি ও সমৃদ্ধির জন্য পৃথিবী পরিদর্শন করেন। আর পৃথিবীর মানুষ আনন্দে এই অনুষ্ঠান উদযাপন করে। এই উৎসবটি মণিপুরী সংস্কৃতির সঙ্গে ওতোপ্রোত ভাবে জড়িয়ে রয়েছে। এটি মূলত, সনামহী ধর্মের ঐতিহ্যগত দেবতাদেরকে উৎসাহিত করার জন্য উদযাপন করা হয়।

উল্লেখ্য, মণিপুরে দেবতাদের সেবায় যে পুরুষরা সারাজীবন নিজেদেরকে উৎসর্গ করেন, তাদের বলা হয় মাইবা (দেবদাস)। একইভাবে যে নারীরা দেবতাদের সেবায় সারাজীবন নিজেদেরকে উৎসর্গ করেন, তাদের বলা হয় মাইবী (দেবদাসী)।#