- জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, রাজনীতি, স্থানীয়, স্লাইডার

রাজপথ ছাড়ি নাই শ্লোগান দিবেন না রাজপথে আমরা কেউ নাই -সাবেক এমপি এম নাসের রহমান

* শুধু একজনকে নয় শপথ গ্রহণকারী বাকি চার এমপিকেও বহিষ্কার করা উচিত

এইবেলা, কুলাউড়া, ০৩ এপ্রিল ::

কুলাউড়া পৌর বিএনপির কাউন্সিলপূর্ব আলোচনা সভায় মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি, সাবেক অর্থমন্ত্রীপুত্র ও সাবেক এমপি এম. নাসের রহমান বলেন, বিএনপি থেকে নির্বাচিত একজন এমপিকে শপথ গ্রহণ করার জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। শুধু একজনকে নয় শপথ গ্রহণকারী বাকি ৪ এমপিকেও বহিষ্কার করা উচিত। কেননা এদের কারণে দল আজ সমালোচিত হচ্ছে। লজ্জায় পড়তে হয়। তারা ব্যক্তিগত স্বাদ আহ্লাদ মিটাতেই শপথ গ্রহণ করেছেন। গত ৩০ ডিসেম্বর দেশে কিভাবে নির্বাচন হয়েছে, তা দেশী এবং বিদেশীরা ভালো করে জানেন।

কুলাউড়ার নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দেশের অন্য স্থানের চেয়ে কুলাউড়ায় একটা লেজে গুবরে অবস্থা হয়েছিলো। নৌকার প্রার্থী ধানে আর ধানের প্রার্থী নৌকায়। যিনি বিজয়ী হয়েছেন গণফোরামের সদস্য। তিনি ধানের শীষ নিয়ে নির্বাচন করেছেন। তার দলের প্রতিক উদিত সুর্য নিয়ে নির্বাচন করেন নাই। নির্বাচনের ২দিন আগে সরকারের সাথে আতাত করে বিজযী হয়েছেন। আর আরেকজন নির্বাচন শেষে আমেরিকায় চলে গেছেন। এই সংসদের কোন মূল্য নাই।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কুলাউড়া থেকে খালেদা জিয়ার আন্দোলন করলে হবে না। খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য ঢাকায় আন্দোলন করতে হবে। খালোদ জিয়া ভয় নাই রাজপথ ছাড়ি নাই। এসব শ্লোগান দেয়া বন্ধ করতে হবে। এসব শ্লোগান যারা দেয়, তাদের লজ্জাবোধ থাকা উচিত। আসলে রাজপথে আমরা কেউ নাই।

সাবেক অর্থমন্ত্রী পুত্র, জেলা বিএনপি সভাপতি ও সাবেক এমপি এম নাসের রহমান শুক্রবার বিকেল ৫টায় স্থানীয় একটি কমিউনিটি সেন্টারে কুলাউড়া পৌর বিএনপির সম্মেলন ও কাউন্সিল পূর্ব আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কথাগুলো বলেন।
কুলাউড়া পৌর বিএনপির আহবায়ক মো, অলিউর রহমান চৌধুরী শিপলুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান বক্তার হিসেবে বক্তব্য দেন মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান মিজান। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সহ- সভাপতি অ্যাডভোকেট আবেদ রাজা। সাংগঠনিক সম্পাদক বকসী মিসবাউর রহমান ও আলহাজ্ব মতিন বখস, জেলা বিএনপি’র দফতর সম্পাদক মো. ফখরুল ইসলাম, কামাল উদ্দিন আহমদ জুনেদ, লন্ডন মহানগর বিএনপি নেতা সাহেদ উদ্দিন চৌধুরী, শওকতুল ইসলাম শকু, বদরুজ্জামান সজল, আব্দুল মজিদ, রেদোওয়ান খান প্রমুখ।

প্রধান বক্তা ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান বলেন, লন্ডনে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য প্রমান করে, খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্যমুলকভাবে জেলে বন্দি করে রাখা হয়েছে।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *