মে ১৪, ২০১৯
Home » জাতীয় » স্কুলছাত্রী অপহরণ বড়লেখায় অপহরক কারাগারে ভিকটিম ছাত্রী পুলিশ হেফাজতে

স্কুলছাত্রী অপহরণ বড়লেখায় অপহরক কারাগারে ভিকটিম ছাত্রী পুলিশ হেফাজতে

এইবেলা, বড়লেখা, ১৪ মে ::

বড়লেখায় স্কুলছাত্রী অপহরণের ৩১ দিন পর সোমবার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বেচ্ছায় অত্মসমর্থন করে শেষ পর্যন্ত কারাগারে টাই হয়েছে অপহরক বখাটে শিমুলের। সে উপজেলার টুকা গ্রামের ছইয়ব আলীর ছেলে। ভিকটিম স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারী পরীক্ষাসহ অন্যান্য আইনী কার্যক্রম সম্পন্নের জন্য পুলিশ হেফাজতে পাঠিয়েছেন বিজ্ঞ আদালত।

আদালত সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার টুকা গ্রামের মহেন্দ্র দাসের মেয়ে স্কুলছাত্রীকে (১৫) স্কুলে যাওয়া-আসার পথে উত্যক্ত করত গ্রামের বখাটে শিমুল আহমদ (১৯)। স্কুলছাত্রীর বাবা-মা এলাকায় শিমুলের বিরুদ্ধে বিচারপ্রার্থী হন। এতে ক্ষীপ্ত হয়ে সে কতেক সহযোগী নিয়ে গত ১২ এপ্রিল রাত দশটার দিকে জোরপুর্বক স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে। সোমবার সকালে অপহরক বখাটে শিমুল আহমদ বড়লেখা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্কুলছাত্রীটিকে নিয়ে আত্মসমর্থন করে জামিন চায়। আদালত জামিন না-মঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে ও ভিকটিম স্কুলছাত্রীকে পুলিশ হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

থানার ওসি (তদন্ত) মো. জসিম উদ্দিন জানান, আদালতের নির্দেশে ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য তাকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন।