মে ২৩, ২০১৯
Home » জাতীয় » কুলাউড়ায় ক্ষতিকারক জেলি মিশ্রিত বাগদা চিংড়ী বিক্রির অভিযোগ : ১২ কেজি আটক

কুলাউড়ায় ক্ষতিকারক জেলি মিশ্রিত বাগদা চিংড়ী বিক্রির অভিযোগ : ১২ কেজি আটক

এইবেলা, কুলাউড়া, ২৩ মে ::

কুলাউড়া উপজেলা সদরের উত্তর বাজারে বিক্রির সময় মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর জেলিযুক্ত চিংড়ী বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে। জেলিযুক্ত চিংড়ী খেলে মানবদেহের অপূরণীয় ক্ষতি হতে পারে। বিষয়টি জানার পর জনমনে উদ্বেগ উৎকন্ঠার সৃষ্টি হয়েছে।
উপজেলা মৎস্য অফিস সুত্রে জানা যায়, ২২ মে রাতে শহরের উত্তর বাজার থেকে ১২ কেজি বাগদা চিংড়ি জব্দ করেন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সুলতান মাহমুদ। পরে ১২ কেজি চিংড়িকে ধ্বংসের পাশাপাশি উপস্থিত ক্রেতাদের সচেতন করা হয়। তবে বিক্রেতা এই ঘটনায় দায়ী না থাকায় এবং ঘটনাটি প্রথমবারের মত হওয়ায় তাকে সতর্ক করা হয়।

এ ব্যাপারে কুলাউড়া উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সুলতান মাহমুদ বলেন, “নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে বাজারে গেলে এই মাছ দেখতে পাই আমরা। মাছ বিক্রেতা এই ১২ কেজি মাছ পার্শ্ববর্তী জুড়ি উপজেলার একটি আড়ৎ থেকে বিক্রির উদ্দেশ্যে বাজারে নিয়ে এসেছেন। বিক্রেতা নিজেও জানেন না এতে যে জেলি আছে।

মৎস্য অফিসার আরও জানান, মোটা তাজা এবং ওজন বাড়ানোর জন্য নিয়ম করে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী চিংড়িতে এক ধরনের জেলি মিশিয়ে বিক্রি করেন। চিংড়িতে সিরিঞ্জের মাধ্যমে জেলি পুশ করা হয়। তারপর চিংড়িগুলো পানিতে ভিজিয়ে রাখা হয় যাতে জেলি জমাট বেধে যায়। আর এই পুশ করা জেলি চিংড়ির সারা দেহে ছড়িয়ে যাচ্ছে। যেগুলো কিনে প্রতারিত হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। সাধারণত চিংড়ির আকার বড় করার জন্য এবং ওজন বৃদ্ধির জন্য চিংড়িতে জেলি মেশানো হয়। কিন্তু মানব দেহের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর এই জেলি।

চিকিৎসকদের মতে, চিংড়িতে মেশানো এই জেলির কারণে চোখের সমস্যা, কিডনির সমস্যা, লিভারের সমস্যা দেখা দিতে পারে। এমন কি ক্যান্সারেরও কারণ হতে পারে এই জেলি।#