মে ৩১, ২০১৯
Home » ব্রেকিং নিউজ » মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির ইফতার সম্পন্ন

মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির ইফতার সম্পন্ন

এইবেলা, মৌলভীবাজার, ৩১ মে ::

জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানে ৩৮ তম শাহদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির উদ্যোগে আলোচনা সভা,দোয়া ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এতে বিএনপি ও সকল সহযোগী সংগঠনের ১২ শতাধিক নেতাকর্মী অংশ নেন।

৩০ মে বৃহস্পতিবার শহরের হোসেন কমিউনিটি সেন্টারে জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য এম নাসের রহমানের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজানের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র ফয়জুল করিম ময়ুন, সহ সভাপতি এডভোকেট আবেদ রাজা, সহসভাপতি মৌলভী আব্দুল ওয়ালী সিদ্দিকী, সহসভাপতি আলহাজ এম এ মুকিত।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- সহ-সভাপতি নাসির উদ্দিন মিঠু, বদরুল আলম, সিনিয়র সদস্য মোশারফ হোসেন বাদশা, যুগ্ম সম্পাদক হেলু মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক বকশী মিসবাউর রহমান, মতিন বক্স, মুজিবুর রহমান মজনু, দপ্তর সম্পাদক ফখরুল ইসলাম,প্রচার সম্পাদক মো.ইদ্রিছ আলী, জেলা বিএনপি নেতা শামীম আহমদ, মহিতুর রহমান হেলাল, মাহমুদুর রহমান,জেলা যুবদল, স্বেচ্ছাসেবকদল, ছাত্রদল, মহিলা দল,কৃষকদল, শ্রমিকদলের নেতৃবৃন্দসহ বড়লেখা, কুলাউড়া,জুড়ি, রাজনগর, কমলগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল উপজেলার বিএনপি’র নেতারা।

ইফতারের পূর্বে দলের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৩৮তম শাহাদতবার্ষিকীতে তার আত্মর মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

কারাবন্দি দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার শপথ নেয় বিএনপি নেতাকর্মীরা।

আলোচনা সভায় সাবেক এমপি এম নাসের রহমান বলেছেন, রণাঙ্গনের বীর মুক্তিযোদ্ধা, নির্ভীক নির্মোহ রাষ্ট্রনায়ক শহীদ জিয়ার আদর্শ, দেশপ্রেম, সততা ও কর্মনিষ্ঠা আজ জাতীয়তাবাদী শক্তির প্রেরণার উৎস।

তিনি বলেন, শহীদ জিয়ার অম্লান আদর্শ, দর্শন ও কর্মসূচি আমাদের স্বাধীনতা রক্ষা, বহুদলীয় গণতন্ত্র এবং দেশীয় উন্নয়ন ও অগ্রগতির রক্ষাকবচ। ‘আজকে দুর্ভাগ্যের সঙ্গে দেখছি, গণতন্ত্র হত্যা করা হয়েছে। মিথ্যা মামলায় গণতন্ত্রের মাতা খালেদা জিয়াকে কারাগারে বন্দি করা হয়েছে। দেশের মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়ে সমগ্র দেশে দুঃশাসন কায়েম করা হয়েছে’।

তিনি বলেন, তার জীবিতকালে জাতির চরম দুঃসময়গুলোতে জিয়াউর রহমান দেশ ও জনগণের পক্ষে অবস্থান গ্রহণ করেন। মহান স্বাধীনতার বীরোচিত ঘোষণা, স্বাধীনতাযুদ্ধে অসামান্য ভূমিকা এবং স্বনির্ভর রাষ্ট্র গঠনে তার অনন্য কৃতিত্বের কথা দেশবাসী ভুলে যাননি।#