জুন ১৮, ২০১৯
Home » ব্রেকিং নিউজ » শ্রীমঙ্গলে ভূমির মালিকানা দাবি করে ক্রেতাকে হুমকির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

শ্রীমঙ্গলে ভূমির মালিকানা দাবি করে ক্রেতাকে হুমকির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

এইবেলা, শ্রীমঙ্গল, ১৮ জুন ::

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে বালিশিরা পাহাড় ব্লক মৌজার প্রবাসী মো. কামাল তরফদার এর কাছ থেকে ৯০ শতাংশ ও স্থানীয় বাসিন্দা মো. আবুল কালাম ও মো. আবুল বাসার এর কাছ থেকে ২৩ শতাংশ জমি বায়নামা দলিল মুলে ক্রয় করে তাদের স্থাপনা তৈরী করেন মো. আ. শুকুর, মো. আফজল হোসেন, মো. মোশারফ হোসেন, মো. নুরুল ইসলাম ও মো. জসিম মিয়া ।

তারা দখলে আসার পর ওই জমির পাশের মালিক শ্রীমঙ্গল স্টেশন রোডের নিউমার্কেটের সত্বাধিকারী প্রভাবশালী মো. আবিদুর রহমান সুহেল ওই জায়গা তার দাবী করে তাদের ক্রমাগত হয়রানি ও হুমকির দিয়ে আসছেন বলে অভিযোগ করেন আব্দুর শুক্কুর ও তার পাটনাররা। মঙ্গলবার বিকেলে শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করে তারা এ অভিযোগ করেন।

জোড় করে দখল করার পায়তারার অভিযোগ দিয়ে আদালতের স্মরনাপন্ন হলে আদালত তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে উক্ত ভূমিতে শান্তিশৃৎঙ্খলা বজায় রাখতে স্থিতাবস্তা জারি করেছেন। তদুপরি ভূমি অপদখল করতে মরিয়া হয়ে উঠে তাদের প্রতিপক্ষ। এখনো প্রাণনাশের হুমকি অব্যাহত ও ভূমি জবরদখল করার পায়তারা চালাচ্ছে বলে তারা জানান।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পাঠ করে ভূক্তভোগী মো. আফজল হোসেন, মো. মোশারফ হোসেন, মো. নুরুল ইসলাম ও মো. জসিম মিয়া বলেন, তাদেরকে হয়রানী, প্রাণনাশ ও গুমের হুমকির বিষয়টি শ্রীমঙ্গল থানা প্রশাসনকে জানিয়েছেন । তারা দাবী করে বলেন, তাদের বায়নামাকৃত সমুদয় ভূমির দাগের সাথে মো. আবিদুর রহমান সুহেলের দাবীকৃত দাগের কোন প্রকার মিল নেই। তবুও, মো. আবিদুর রহমান সুহেলের তাদের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও ক্রমাগত হুমকি ও মিথ্যা মামলার ফলে হয়রানি ও ভীতির মধ্যে থাকতে হচ্ছে। এ অবস্থায় শ্রীমঙ্গল থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন বলে জানান, সংবাদ সম্মেলনকারী মো. আ. শুকুর। এছাড়া, মৌলভীবাজার আদালতে মো. মোশারফ হোসেন আরও দুটি পিটিশন মামলা দায়ের করেছেন।

এ ব্যাপারে মো. আবিদুর রহমান সুহেলের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এস এ ৩৭ দাগের জায়গা মো. আ. শুকুর, মো. আফজল হোসেন, মো. মোশারফ হোসেন, মো. নুরুল ইসলাম ও মো. জসিম মিয়া বায়নামামূলে ক্রয় করে আমার এস এ ৩৬ দাগের জায়গা রাতের অন্ধকারে দখলের চেষ্টা করা হলে আমি তা প্রতিহত করার চেষ্টা করেছি মাত্র।#