জুন ২০, ২০১৯
Home » জাতীয় » বড়লেখায় কলেজছাত্র প্রান্ত হত্যা : দাদা ও বৌদির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট

বড়লেখায় কলেজছাত্র প্রান্ত হত্যা : দাদা ও বৌদির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট

এইবেলা, বড়লেখা, ২০ জুন ::

বড়লেখায় চাঞ্চল্যকর কলেজছাত্র প্রান্ত চন্দ্র দাস (১৮) হত্যা মামলায় নিহতের পিসাতো দাদা সুমন দাস ও বৌদি নিভা রানী দাসের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেছে পিবিআই (পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিকেশন)। মঙ্গলবার বড়লেখা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হরিদাস কুমারের আদালতে চার্জশিটটি দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই শিবিরুল ইসলাম।

জানা গেছে, গত বছরের ৩১ অক্টোবর বড়লেখার বর্ণি ইউপির মিহারী নয়াগ্রামের পিসির (ফুফুর) বাড়ির একটি পরিত্যক্ত রান্নœাঘরের জানালার গ্রিলে মুখ বাঁধা দন্ডায়মান অবস্থায় কলেজছাত্র প্রান্ত দাসের লাশ পাওয়া যায়। প্রান্ত উপজেলার সুজানগর ইউপির বাঘমারা গ্রামের সনত দাসের ছেলে। সে পিসির বাড়িতে থেকে কলেজে লেখাপড়া করতো। পিসির বাড়ির লোকজন প্রান্ত আত্মহত্যা করেছে প্রচার করায় লাশ উদ্ধারের পর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু হয়। পরবর্তীতে ময়না তদন্ত প্রতিবেদনে হত্যার প্রমাণ মেলায় নিহত প্রান্ত দাসের ভাই শুভ দাস পাচ জনের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। গত ১২ নভেম্বর পুলিশ প্রধান আসামী সুমন চন্দ্র দাসসহ ৫ আসামীকে গ্রেফতারের পর আদালতে সোপর্দ করে রিমান্ড প্রার্থনা করে। ৫ দিনের রিমান্ড শেষে প্রধান আসামী সুমন চন্দ্র দাস বড়লেখা আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হরিদাস কুমারের খাস কামরায় প্রান্ত হত্যার দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি প্রদান করে। পরে বাদীর আবেদনে এ হত্যা মামলাটি পিবিআইতে স্থানান্তরিত হয়।

মৌলভীবাজার পিবিআই এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. নজরুল ইসলাম বুধবার বিকেলে জানান, আদালতের নির্দেশে এ হত্যা মামলার তদন্তের দায়িত্ব পান এসআই শিবিরুল ইসলাম। তিনি নিহত প্রান্ত দাসের পিসাতো দাদা সুমন চন্দ্র দাস ও স্ত্রী নিভা রানী দাসকে অভিযুক্ত করে মঙ্গলবার আদালতে চার্জশিট দাখিল করেছেন।#