জুলাই ১১, ২০১৯
Home » আন্তর্জাতিক » টিবিএন ইসলামিক টিভি’র আয়োজনে দেশসেরা মিডিয়া ব্যক্তিদের নিয়ে প্রোগ্রাম পরিকল্পনা বিষয়ক মতবিনিময়

টিবিএন ইসলামিক টিভি’র আয়োজনে দেশসেরা মিডিয়া ব্যক্তিদের নিয়ে প্রোগ্রাম পরিকল্পনা বিষয়ক মতবিনিময়

মুহাম্মদ আবদুল কাহহার,  ঢাকা, ১১ জুলাই  ::

নিউইয়র্ক ভিত্তিক ঢাকাস্থ টিবিএন টোয়েন্টিফোর ও টিবিএন ইসলামিক টিভি’র আয়োজনে মিডিয়া ব্যক্তিদের নিয়ে ১০ জুলাই সন্ধ্যায় প্রোগ্রাম পরিকল্পনা বিষয়ক মতবিনিময় সভা ২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মতবিনিময়ে অংশ নেয়া অতিথির একাংশ                                                                                                ছবি : এইবেলা

টিবিএন’র সম্মানিত সিইও আহমাদুল পুলক এর সভাপতিত্বে ও ইসলামী অনুষ্ঠানের হেড অব প্রোগ্রাম বিশিষ্ট মিডিয়া ব্যক্তিত্ব মুহাদ্দিস মাহমুদুল হাসান এর সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন-ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়’র ইসলামিক স্ট্যাডিজ বিভাগের প্রফেসর ড. শামসুল আলম, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়’র ইসলামিক স্ট্যাডিজ বিভাগের প্রফেসর জনাব ড. আহমাদ আবুল কালাম, আইআই ইউ সি’র ইসলামিক স্ট্যাডিজ বিভাগের প্রফেসর মোখতার আহমাদ, আন্তর্জাতিক পুরস্কারপ্রাপ্ত ক্বারী হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম, ধানমন্ডি মসজিদুত্ তাকওয়া’র খতীব হাফেজ মুফতি সাইফুল ইসলাম, বাংলাদেশ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্ট্যাডিজ বিভাগের প্রভাষক ও হাফেজ মুফতি মুহাম্মদ যাকারিয়া, বাংলাদেশ জাতীয় মুফাসসির পরিষদ ঢাকা মহানগরীর সম্পাদক সাদিকুর রহমান আল আযহারী, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব খালিদ সাইফুল্লাহ বকশি, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব মুফতি মোহাম্মদ হেদায়েতুল্লাহ, শিক্ষক, সাংবাদিক ও কলামিস্ট মুহাম্মদ আবদুল কাহহার, এজিএম মুহাম্মদ সুমন, এজিএম সুমাইয়া, হেড অব ব্রোডকাষ্ট মুহাম্মদ মহসিন, হাফেজ নূরুল্লাহ মাহদী প্রমুখ।

মতবিনিময় সভায় টিবিএন’র সম্মানিত সিইও আহমাদুল পুলক বলেন, আল্লহ ও রাসূল সা. এর কথা বেশি বেশি প্রচার করার পাশাপাশি বিতর্কীত বিষয়গুলো এড়িয়ে ইসলামের সৌন্দর্য তুলে ধরে মৌলিক বিষয় সহজভাবে উপস্থাপন করা সময়ের দাবী। ইসলামকে জানতে-বুঝতে জীবন ঘনিষ্ঠ জীবন্ত উদাহরণ পেশ করা প্রয়োজন। অধিকাংশ দর্শক শ্রোতা বিভিন্ন আমলের ফজিলত জানেন কিন্তু ইসলাম কী বা কেন তা যখাযথ জানেন না। এক্ষেত্রে ইসলামী ন্তলারদের দায় সমাজের অন্যান্যদের চেয়ে বেশি। সভায় ইসলামী স্কলারগণ নিজ নিজ মতামত ব্যক্ত করেন। সর্বোপরি, একজন আদর্শ মুসলিম হওয়ার জন্য কুরআন-সুন্ন্াহ অনুযায়ী নিজেকে গড়ে তুলবার আহবান জানিয়ে সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।