জুলাই ১২, ২০১৯
Home » ব্রেকিং নিউজ » কমলগঞ্জ মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ইসলাম ধর্মের শিক্ষক না থাকায় শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি

কমলগঞ্জ মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ইসলাম ধর্মের শিক্ষক না থাকায় শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি

এইবেলা, কমলগঞ্জ, ১২ জুলাই ::

৪ মাস ধরে ইসলাম ধর্মের শিক্ষক ছাড়াই চলেছে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। এতে করে প্রায় ১ হাজার মুসলিম শিক্ষার্থী ধর্মীয় বিষয়ের প্রকৃত শিক্ষা গ্রহণ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। ধর্মীয় শিক্ষক না থাকায় শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি হচ্ছে। এতে অভিভাবকরাও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

জানা যায়, কমলগঞ্জ মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ৬ষ্ট শ্রেণী হতে ১০ শ্রেনী পর্যন্ত মুসলিম ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা প্রায় ১ হাজার। এই মুসলিম ছাত্রছাত্রীদের জন্য একজন ইসলাম ধর্মের শিক্ষক ছিলেন। তিনি সব ক্লাসে পর্যায়ক্রমে পাঠদান করাতেন। কিন্তু চলতি বছরের ২৮ র্ফ্রয়োরী ইসলাম ধর্মের শিক্ষক মাওলানা এবি এম আব্দুল হান্নান চাকুরী হতে অবসর গ্রহন করেন। তারপর হতে দীর্ঘ ৪ মাস ধরে ইসলাম ধর্ম শিক্ষক ছাড়াই পাঠদান চলেছে। নিদিষ্ট ইসলাম ধর্মের বিষয়ক কোন শিক্ষক নিয়োগ বা খন্ডকালীন ব্যবস্থা না করায় স্কুলের মুসলিম শিক্ষক বিলকিস বেগম, দেলোয়ার হোসেন, সামসুল ইসলাম চৌধুরীসহ অন্য শিক্ষকরা অতিরিক্ত হিসাবে ধর্ম শিক্ষার ক্লাস নিয়ে থাকেন। তারা মুল ক্লাসের ফাঁকে ফাঁকে ইসলাম ধর্মের ক্লাস নেন। অনেক সময় ক্লাস ও ঠিক মতো নিতে পারেন না। পাঠদান করাতে গিয়ে একদিকে শিক্ষকরা যেমন বিভ্রান্ত হন অন্যদিকে ধর্মীয় বিষয়ের প্রকৃত শিক্ষা গ্রহণ থেকে ছাত্রছাত্রীরাও বঞ্চিত হচ্ছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুুক ৬ষ্ট ,৭ম শ্রেণীর একাধিক ছাত্ররা বলে, মাওলানা স্যার থাকতে আমাদের ইসলাম ধর্ম শিক্ষা নিয়মতি হতো। এখন আর নিয়মিত হয় না। এছাড়া আমাদের বুঝতে অসুবিধা হয়। ৪ মাস ধরে শিক্ষার্থীরা প্রকৃত শিক্ষা গ্রহন হতে বঞ্চিত হচ্ছে।

এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রনেন্দ্র কুমার দে বলেন, ইসলাম ধর্মের শিক্ষক অবসরে চলে যাওয়ায় পদটি শুন্য আছে। বর্তমান মুসলিম শিক্ষকরা পাঠদান করাচ্ছেন। খন্ডকালীন শিক্ষক নিয়োগের ব্যাপারে সভাপতির সাথে আলাপ হয়েছে। একজন মাওলানা শিক্ষক খোঁজা হচ্ছে।