- ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, স্থানীয়, স্লাইডার

চুরি ও ছিনতাই প্রতিরোধে মাধবপুরে স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তার ঝোপঝাড় পরিষ্কার

রোকন উদ্দিন লস্কর, মাধবপুর, ২০ জুলাই ::

স্বেচ্ছাশ্রমে মাধবপুর উপজেলার আন্দিউড়া- বানেশ^র রাস্তার দু পাশের প্রায় ৩ কিলোমিটার ঝোপঝাড় ও আগাছা পরিষ্কার করা হয়েছে। ঈদ কে সামনে রেখে রাতে রাস্তায় চুরি, ছিনতাই ঠেকাতে ওসির পরামর্শে এ উদ্যোগ নিয়েছে বাণেশ^র, মাহমুদপুর গ্রামের জনগন।

উপজেলার আন্দিউড়া বানেশ^র সড়কে কিছু দিন পর পর ছোট খাট চুরি,ছিনতায়ের ঘটনা ঘটে। ঈদ আসলে এ সড়কে অপরাধ প্রবণতা বেড়ে যায়। চুরি, ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িতরা ঝোঁপ ঝাড়ের মধ্যে ঘাপটি মেরে বসে থাকে। সুযোগ পেলেয় পথচারিদের আটকিয়ে চুরি, ছিনতাই করে স্ববস্ব নিয়ে যায়। আগাছা ও ঝোপঝাড় বেশি থাকায় পুলিশও তাদের ধাওয়া করে ধরতে পারে না। কেএম আজমিরুজ্জামান মাধবপুর থানায় ওসি হিসাবে যোগদান করার পর সড়কটিতে রাতে অপরাধ কমাতে নানা পদক্ষেপ গ্রহন করেন। এরই অংশ হিসাবে বানেশ^র- মাহমুদপুর গ্রামের গন্যমান্য ব্যাক্তিদের নিয়ে পরামর্শ করেন। এরপর তিনি স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তার ঝোপঝাড় আগাছা পরিষ্কারের আহ্বান জানালে তরুন সমাজ সেবক মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে এলাকার শতাধিক লোক শনিবার সকালে দা, কুড়াল , কোদাল নিয়ে আন্দিউড়া – বানেশ^র রাস্তায় নামে। তারা রাস্তায় বিভিন্ন ঝোপঝাড় পরিষ্কার করেন।

প্রবাস ফেরত আনিসুর রহমান জানান, বানেশ^র , মাহমুদ গ্রামের অনেক লোক ঢাকা সহ বিভিন্ন এলাকায় থাকেন। ঈদ মৌসুমে অনেকে গ্রামে আসেন । রাত ১০ টার পর বানেশ^র গ্রামে সিএনজি (অটোরিক্সা) আসতে ভয় পেত। কারন এ রাস্তায় ঝোপঝাড় থাকার কারনে দূর্বত্তরা ঝোপঝাড়ে উৎপেতে থেকে যাত্রীদের উপর হামলা করে টাকা পয়সা ছিনিয়ে নিত। এখন রাস্তা পরিষ্কার হওয়ায় অপরাধ কমে যাবে বলে মনে করি।

বাণেশ^র গ্রামের পল্লি চিকিৎসক সেলিম চৌধুরী বলেন, আন্দিউড়া বানেশ^র রাস্তায় স্বেচ্ছাশ্রমে আগাছা ,ঝোপঝাড় পরিষ্কার হওয়ায় রাস্তার শ্রী বৃদ্ধি পেয়েছে। রাতের বেলা চলাচল করতেও কোন অসুবিধা হবে না। আগে দূর্বত্তরা ঝোপঝাড়ে উৎপেতে থাকত আবার অপরাধ সংঘটিত করে ঝোপঝাড়ে আশ্রয় নিত। এখন আর এ সুযোগ নেই।

মাধবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) কেএম আজমিরুজ্জামান জানা, জনগন কে বুজিয়ে বলা হয়েছে ঝোপঝাড় পরিষ্কার করার জন্য। এতে গ্রামবাসি উৎসাহিত হয়ে ঝোপঝাড় পরিষ্কারে নামে। আগে ঝোপঝাড়ের কারনে টহল পুলিশ দুরে কি হচেছ দেখতে পেত না। এখন দূর্বত্তরা আতংকে থাকবে।

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *