- জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, সুনামগঞ্জ, স্লাইডার

ফলোআপ-  বিজিবি সীমান্তে চাঁদাবাজদের কঠোরভাবে প্রতিরোধ করবে .. লে. কর্ণেল মাকসুদুল আলম

এইবেলা, সুনামগঞ্জ, ২৬ জুলাই ::

২৮-বর্ডারগার্ড ব্যাটালিয়ন (বিজিবি) বাংলাদেশ সুনামগঞ্জের অধিনায়ক তাহিরপুরের সীমান্ত এলাকায় পাহাড়ি ঢলে বন্যাকবলিত সীমান্তবাসীর সাথে মতবিনিময় সভা করেন। বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই বিকেলে উপজেলার চারাগাঁও বিওপিতে ওই মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

সাম্প্রতিকালে পাহাড়ি ঢলে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ সীমান্তের হতদরিদ্র পরিবারের নারী পুরুষ, সচেতন মহল, শিক্ষক, ব্যবসায়ী, গণমাধ্যমকমী সহ সর্বস্থরের লোকজনের অংশগ্রহনে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. মাকসুদুল আলম বলেন, সীমান্তে মাদক, মানবপাচার, চোরাচালান, অবৈধ অনুপ্রবেশ সহ সব ধরণের অপতৎপরতা প্রতিরোধে সীমান্তবাসীকে সচেতন থাকার জন্য এবং সব ধরণের তথ্য দিয়ে বিজিবিকে সহযোগীতা করার আহবান জানান।,

এছড়াও সীমান্তের খেটে খাওয়া মানুষজন কতৃক পাহাড়ি ছড়া বা নদী দিয়ে ঢলের পানিতে ভেসে আসা কুড়ানো বাংলা কয়লা, মরা পাথর ও বালু থেকে দরিদ্রদের জীবিকা নির্বাহে সীমান্তে চাঁদাবাজদের থাবা বিজিবি কঠোরহস্তে প্রতিরোধ করবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন বিজিবি অধিনায়ক।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরে পাহাড়ি ঢলে ভেসে আসা কয়লা, মরাপাথর, বালু আটক বা জব্দ করবে না বিজিবি, সেক্ষেত্রে বাংলা কয়লার সাথে চোরাই কয়লার মিশিয়ে তা সরবরাহের অপচেষ্টা এবং সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতের অভ্যন্তরে গিয়ে ঢলের পানিতে ভেসে আসা কয়লা ও মরা পাথর সংগ্রহ থেকে বিরত থাকতে তিনি সীমান্তের হতদরিদ্র খেটে খাওয়া মানুষজনকে আহবান জানান তিনি।

সভায় সীমান্তের খেটে যাওয়া মানুষজনের দাবির প্রেক্ষিতে নিয়মতান্ত্রীক উপায়ে সভায় উপস্থাপিত প্রস্তাবনা অনুযায়ী স্থানীয় বাজারে পাহাড়ি ঢলে ভেসে আসা কুড়ানো বাংলা কয়লা, মরাপাথর, বালু বিক্রয়ের জন্য উপস্থাপন এবং বিকেলে ৫ ঘটিকার মধ্যে নির্ধারিতঘাট থেকে নৌকায় পরিবহন অন্যথায় এ সময়সীমার ব্যতয় ঘটলে বিজিবি প্রচলিত আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবে বলেও সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

অবৈধভাবে সীমান্ত আইন লংঙ্গন করে ভারতের অভ্যন্তরে গিয়ে কোন ধরণের ভেসে আসা কয়লা, মরা পাথর বা বালু সংগ্রহ থেকে বিরত থাকা এমনকি মাদক সহ সব ধরণের চোরাচালান প্রতিরোধে বিজিবিকে তথ্য দিয়ে সহযোগীতা করবেন বলে সীমান্তবাসী বিজিবিকে প্রতিশ্রুতি দেন।

এছাড়াও সম্প্রতি ভারতীয় সীমান্তের অভ্যন্তরে সেদেশের সরকার কতৃক জারিকৃত সিআরপিসি ১৪৪ ধারা অনুযায়ী নিষেধাজ্ঞা যথাযতভাবে পালন ও লঙ্গন করবেন না বলে সীমান্তবাসী প্রতিশ্রুতি দেন।

উপজেলার লাউড়েরগড় বিওপির সুবেদার হাবিবুর রহমান,চারাগাঁও ক্যাম্প কমান্ডার নায়েব সুবেদার মো. মুখলেছুর রহমান, সাংবাদিক হাবিব সরোয়ার আজাদ, গোলাম সারোয়ার লিটন, আতিকুর রহমান, রাজন চন্দ, আবুল কাসেম, জাকির হোসেন রাজু, রাহাদ হাসান মুন্না, বিওপির হাবিলদার, নায়েক, বিজিবি সদস্যগণ,গণমাধ্যমকর্মীগণ, এলাকার হতদরিদ্র পরিবারের লোকজন সহ সীমান্তের বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকজন প্রমুখ মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন।,

একই দিন বিজিবি অধিনায়ক আলোকিত সীমান্ত কর্মসুচীর আওতায় ২৮-বিজিবি ব্যাটালিয়নের নিজস্ব অর্থায়নে টেকেরঘাটের লাকমা মহিলা মাদ্রাসা ও এতিম খানায় হাওরতীরের বিভিন্ন গ্রামের শিক্ষার্থীদের যাতায়াতে জন্য একটি দেশীয় নৌকা প্রদান করেন।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *