- আন্তর্জাতিক, জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, স্থানীয়, স্লাইডার

কুলাউড়ার চাতলাপুরে বিজিবি-বিএসএফ সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ে বৈঠক

সীমান্তে পারস্পরিক সমস্যা সমাধান ও সম্পর্ক উন্নয়নে গুরুত্বারোপ

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, চাতলাপুর সীমান্ত থেকে ফিরে, ২৯ জুলাই :: 

কুলাউড়ার উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের চাতলাপুর চা বাগান ব্যবস্থাপকের বাংলোয় বাংলাদেশ-ভারত (বিজিবি-বিএসএফ) সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ে সমন্বয় ও সৌজন্য বৈঠক হয়েছে। সোমবার ২৯ জুলাই সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে সৌজন্য সাক্ষাতসহ আন্ত:সীমান্ত অপরাধ, অবৈধ অনুপ্রবেশ, নারী ও শিশু পাচার, অস্ত্র চোরাচালান ও মাদক চোরাচালান প্রতিরোধে জিরো টলারেন্স নীতি বাস্তবায়নে উভয়পক্ষ সীমান্তে অপরাধ দমনে পারস্পরিক সহযোগিতা ও সমন্বয়ের ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়।

বৈঠকে বাংলাদেশের বিজিবির পক্ষে শ্রীমঙ্গল সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল জোবায়ের হাসনাৎ, পিএসসি, এলএসসি এবং ভারতের পক্ষে বিএসএফ পানিসাগর ও তেলিয়ামুড়া সেক্টরের ডিআইজি শ্রী সিন্দু কুমার ও শ্রী রাজিব কুমার নেতৃত্ব দেন। এ সময় বিজিবির শ্রীমঙ্গস্থ ৪৬ ব্যাটেলিয়ন কমান্ডার ল্যা. কর্নেল আরিফ আহমদসহ বিজিবি এবং বিএসএফ এর সংশ্লিষ্ট ব্যাটালিয়ান অধিনায়কগণ এবং সংশ্লিষ্ট ষ্টাফ অফিসারগণ অংশগ্রহণ করেন।

বৈঠক শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে বিজিবি শ্রীমঙ্গল সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল জোবায়ের হাসনাৎ, পিএসসি, এলএসসি জানান, অত্যন্ত আন্তরিক ও সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত উভয় সেক্টর কমান্ডারের সৌজন্য সাক্ষাত ও বৈঠকে দুই প্রতিবেশী রাষ্ট্রের সীমান্ত সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে বিশদ আলোচনা হয়।

এর মধ্যে সীমান্ত রেখায় অবৈধভাবে অতিক্রম করার বিরুদ্ধে নজরদারী আরও বাড়ানোর বিষয়ে একমত হন। এলাকায় সংঘটিত বিভিন্ন অপরাধ দমনে কার্যকরি ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উভয় পক্ষ জোরদার ভূমিকা রাখার ব্যাপারে অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

বৈঠকে বিজিবির পক্ষ থেকে অবৈধভাবে সীমান্ত পারাপার, ভারত হতে চোরাচালানীর মাধ্যমে গরু, মদ, ফেন্সিডিল, নিষিদ্ধ পাতা বিড়িসহ বিভিন্ন মাদক ও অবৈধ পণ্য বাংলাদেশে প্রবেশ বন্ধ করার ব্যাপারে বিএসএফ কর্তৃক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানানো হয়।

এছাড়াও ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের প্রস্তাবিত বিভিন্ন বিষয়সমূহ দ্রুত সমাধাণ করার সম্ভাব্যতা যাচাই করা হয়। চাতলাপুর আইসিপির বিভিন্ন কার্যক্রম আরও বেগবান করার উদ্দেশ্যে চাতলাপুরে বিজিবি কর্তৃক ডিউটির জন্য অবকাঠামো নির্মাণ, ল্যান্ড কাষ্টম ষ্টেশন নির্মাণের ব্যাপারে বিএএসএফ এর প্রস্তাবনার খুঁটিনাটি দিক পর্যালোচনা করা হয়।

বৈঠকে ভারতের পক্ষে বিএসএফ পানিসাগর সেক্টরের ডিআইজি শ্রী সিন্দু কুমার জানান, ভারতীয় অংশে মনু নদীর কারণে ক্ষত্রিগ্রস্ত গ্রাম-সামরুমুক বেড়িবাঁধ নির্মাণ, পুরাতন শ্মশানঘাট পূণ:নির্মাণসহ কতিপয় অবকাঠামোগত সুবিধা নির্মাণের বিষয়ে আলোচনা হয়। উভয় দেশের সীমান্তে বসবাসকারী জনগণের জীবনের নিরাপত্তা প্রদান নিশ্চিত করণের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনাপূর্ব্বক একমত পোষণ করা হয়। ভবিষ্যতে আস্থা বৃদ্ধি সহায়ক বিভিন্ন কার্যক্রম (খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান) অনুষ্ঠান আয়োজনের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

চাতলাপুর সীমান্ত সীমান্ত হাট ও স্থল শুল্ক স্টেশনে কার পাস সম্পর্কে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বিএসএফ-এর পানিসাগর সেক্টরের ডিআইজি শ্রী সিন্দু কুমার ভারতের কমলপুর সংলগ্ন বাংলাদেশ এলাকা, বাংলাদেশের মুড়ইছড়া সীমান্ত হাটের যাচাই চলছে। অদূর ভবিষ্যতে সেগুলো হবে। চাতলাপুর স্থল শুল্ক স্টেশনে প্রয়োজনীয় কার পাসেরও কাজ চলছে। বৈঠকে বিজিবি এবং বিএসএফ এর সংশ্লিষ্ট ব্যাটালিয়ান অধিনায়কগণ এবং সংশ্লিষ্ট ষ্টাফ অফিসারগণ অংশগ্রহণ করেন।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *