- জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, স্লাইডার

কমলগঞ্জে একটি ঘরের জন্য প্রতিবন্ধি নারীর আহাজারি

এইবেলা, কমলগঞ্জ, ১৮ আগস্ট ::

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত ‘সবার জন্য বাসস্থান’ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ‘জমি আছে ঘর নাই তার নিজ জমিতে গৃহ নির্মাণ’ কাজ দেশব্যপী চলছে। ‘জমি আছে ঘর নাই’ প্রকল্পের আওতায় সরকারের পক্ষ থেকে তৈরি করে দেওয়া ঘরে মাথা গোঁজার ঠাঁই পেয়ে দরিদ্র পরিবারগুলো এখন আনন্দে আত্মহারা। এরই ধারাবাহিকতায় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় চলমান রয়েছে ঘর নির্মাণ কার্যক্রম।

কমলগঞ্জ উপজেলার ২নং পতনঊষার ইউনিয়নের সোনারগাও (বলরামপুর) এলাকার মৃত লোকমান মিয়ার প্রতিবন্ধি স্ত্রী লুৎফা বেগম (৪৪) এর বসত ঘরটি বিগত ২০১৮ সালের বন্যায় পুরোপুরি ক্ষতিগ্রস্থ হয়। বন্যার সময় স্থানীয় ইউপি সদস্যের মাধ্যমে ২নং পতনঊষার ইউনিয়নে একটি ঘরের জন্য কাগজাত জমা দেন। দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও প্রধানমন্ত্রীর প্রকল্পের একটি ঘর ভাগ্যে জোটেনি ৪ সন্তানের জননী প্রতিবন্ধি লুৎফা বেগমের। নিয়মিত প্রতিবন্ধি ভাতা প্রাপ্ত লুৎফা বেগম।

সরেজমিনে দেখা যায়, ঝুঁকিপূর্ণ ঘরে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সন্তানাদী নিয়ে বসবাস করছেন এ প্রতিবন্ধি নারী। লুৎফা বেগম জানান, বন্যায় বসতঘরটি ক্ষতিগ্রস্থ হলেও আবেদন নিবেদন করেও একটি ঘর পেলাম না। এব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর কাছে কান্না জড়িত কণ্ঠে একটি ঘরের জন্য আকুল আবেদন জানান তিনি।

২নং পতনঊষার ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য শায়েক আহমদ বলেন, লুৎফা বেগম একজন নিরীহ হত-দরিদ্র ও প্রতিবন্ধি নারী। সে অবশ্যই প্রধানমন্ত্রীর প্রকল্পের একটি ঘর পাবার হকদার। আমার ওয়ার্ডে ২০১৮ সালের বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ হত-দরিদ্র অনেকেই আবেদন করেও ঘর পায়নাই।

২নং পতনঊষার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার তওফিক আহমদ বাবু বলেন, প্রতিবন্ধি মহিলাকে সঠিক চিনতে পারছিনা। তবে আমার অফিসে আসলে একটি ঘর পেতে আমার পক্ষ থেকে যতটুকু সহযোগিতা প্রয়োজন তা আমি করে একটি ঘরের ব্যবস্থা করে দিবো।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *