- আন্তর্জাতিক, ব্রেকিং নিউজ, রাজনগর

ফলোআপ-রাজনগরে স্কুলছাত্রের আত্মহত্যা : পরিকল্পিত হত্যাকান্ড দাবি করে শ্রমিকদের একঘন্টার কর্মবিরতি

এইবেলা, রাজনগর, ০৩ সেপ্টেম্বর ::

মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার ইটা চা বাগানে দশম শ্রেণির ছাত্র আব্দুর রহিমের মৃত্যুকে পরিকল্পিত হত্যা দাবি করে বিক্ষোভ ও ১ ঘন্টা কর্মবিরতি পালন করেছে বাগানের শ্রমিকেরা। ০৩ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকালে বাগানের স্টোর এলাকায় সহ¯্রাধিক শ্রমিক বিক্ষোভ করে এবং আব্দুর রহিম হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও শাস্তির দাবি জানায়। নিহতের পরিবারের দাবি, আব্দুর রহিমকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে তার প্রেমিকার পরিবার এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মুন্সিবাজার ইউনিয়নের ইটা চা বাগানের আব্দুল আজিজের ছেলে করিমপুর খলাগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র আব্দুর রহিমের প্রেমের সম্পর্ক ছিল ওই বাগানের ৫নং সেকশনের মাসুদ মিয়ার মেয়ে ইয়াছমিন আক্তারের সঙ্গে। ইয়াছমিন আক্তারও একই বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী। এই সুবাদে উভয়ের মধ্যে বেশ কিছু দিন থেকে প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। গত ১৫-১৬ দিন আগে উভয়ের পরিবারের মাঝে বিরোধ দেখা দেয়। পরে বিষয়টি মিমাংসা করা হয়। এসময় ইয়াছমিনের পরিবার হুমকি দিয়ে বলেছিল তাদের বাড়িরে আশেপাশে গেলে তারা তাকে মেরে ফেলবে। এঘটনার পনের দিন পরই আব্দুর রহিমের লাশ পাওয়া যায়।

এদিকে নিহত আব্দুর রহিমের পা মাটির সঙ্গে লেগে থাকা অবস্থায় লাশ গাছের সঙ্গে ঝুলানো ছিল। এছাড়াও যে ওড়না দিয়ে ঝুলছিল তাও ইয়াছমিনের বলে অনেকে সনাক্ত করেছেন। এসব বিষয় দেখে আব্দুর রহিমকে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে দেয়া হয়েছে বলে সন্দেহ করছে আব্দুর রহিমের পরিবার ও স্থানীয় লোকজন। এছাড়াও আত্মহত্যা করেছে বলে নিশ্চিত করার তার মোবাইল থেকে হয়তো তারাই (ইয়াছমিনের পরিবার) এসএমএস পাঠিয়েছে।

অপরদিকে আব্দুর রহিমের হত্যার প্রতিবাদে মঙ্গলবার সকালে ইটা চা বাগানের শ্রমিকেরা ১ ঘন্টা কর্মবিরতি পালন ও বিক্ষোভ করেছে।

শ্রমিকদের বিক্ষোভের সময় বক্তব্য দেন বাগানের ব্যবস্থাপক ফারুক আহমদ চৌধুরী, বাগানের পঞ্চায়েত সভাপতি নাসিম আহমদ ও স্থানীয় জমির উদ্দীন প্রমুখ।

ইটা চা বাগানের পঞ্চায়েত সভাপতি নাসিম আহমদ জানান, আব্দুর রহিমের হত্যাকারীদের শাস্তির দাবিতে ১ঘন্টা কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ করা হয়েছে। তার পরিবারের দাবি তাকে হত্যা করে লাশ ঝুলানো হয়েছে। তবে পুলিশ বলেছে, ময়না তদন্ত রিপোটর্ ছাড়া হত্যা না আত্মহত্যা বলা যাচ্ছে না।

ইটা চা বাগানের ম্যানেজার ফারুক আহমদ চৌধুরী জানান, শ্রমিকরা উত্তেজিত হয়ে আইন যাতে নিজের হাতে তুলে না নেয়। পুলিশের সঙ্গে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রেহণ করবেন। । এছাড়াও শ্রমিকদেরও শান্ত থাকার আহবান জানিয়েছেন।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *