- ব্রেকিং নিউজ, রাজনগর, রাজনীতি

 রাজনগর উপজেলা আ’লীগ সভাপতি- জেলার সিদ্ধান্ত অবৈধ ও নিজেকে বৈধ সভাপতি দাবি

এইবেলা, রাজনগর, ১২ সেপ্টেম্বর ::

মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মো. মিসবাহুদ্দোজা ১২ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলন করে জেলা আওয়ামী লীগ কর্তৃক তাকে বহিস্কারের সিদ্ধান্তকে অবৈধ ও নিজেকে বৈধ সভাপতি দাবি করেন। একই দিন কেন্দ্রিয় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের স্বাক্ষরিত কারণ দর্শাণোর একটি চিঠিও হাতে পান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মো. মিসবাহুদ্দোজা বলেন, তিনি দীর্ঘ ২৫ বছর যাবৎ সুনামের সাথে রাজনগর উপজেলা আওযামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। গত ২৭ আগস্ট কেন্দ্রিয় আওয়ামী লীগের নির্দেশনা ছাড়া মৌলভীবাজার জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে তাকে সভাপতির পদ থেকে অব্যাহতিপত্র দেয়া হয়। জেলার সেই চিঠি নিয়ে তিনি গত ০৩ সেপ্টেস্বর কেন্দ্রিয় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের সাথে দেখা করেন। কেন্দ্রিয় সাধারণ সম্পাদক তাকে আশ^স্থ করে বলেন, আওয়ামী লীগের সভাপতি ব্যতিত কোন ব্যক্তিকে পদ হতে অব্যাহতি কিংবা অপসারণের এখতিয়ার কারো নেই। সেই হিসেবে তিনি রাজনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে এখন বহাল আছেন।

মো. মিসবাহুদ্দোজা জানান, ১৪ সেপ্টেম্বর রাজনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় সভাপতি হিসেবে তাকে আমন্ত্রণ জানানো হলে তিনি সেই সভায় অংশ নেবেন এবং পরবর্তীতে সভাপতি হিসেবে কাউন্সিলে প্রার্থীও হবেন। অন্যতায় তিনি পৃথক বর্ধিত সভা করে করণীয় নির্ধারণ করবেন।

এদিকে গত ০৮ সেপ্টেম্বর কেন্দ্রিয় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের স্বাক্ষরিত একটি কারণ দর্শাণোর চিঠি বৃহস্পতিবার হাতে পান মো. মিসব্হাুদ্দোজা। চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, সম্প্রতি অনুস্টিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ ও নানাবিধ তৎপরতাসহ সংগঠনের শৃঙ্খলা বিরোধী ও গঠনতন্ত্র পরিপন্তী কর্মকান্ডে লিপ্ত থাকার লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। ২১ কার্যদিবসের মধ্যে এর জবাব আওয়ামী লীগের সভাপতির ধানমন্ডী রাজনৈতিক কার্যালয়ে প্রেরণ করার নির্দেশ দেয়া হয়।

দলীয় সিদ্ধান্তের বিপক্ষে নির্বাচনে অংশগ্রহণ প্রসঙ্গে মো. মিসবাহুদ্দোজা জানান, বিএনপি নির্বাচন না করায় স্বত:স্ফুর্ত নির্বাচনের লক্ষ্যে তিনি উপজেলা নির্বাচনের অংশ নেন। সেসময় নির্বাচনে অংশ নেয়ার ব্যাপারে দলীয় কোন বিধিনিষেধ ছিলো না।

সংবাদ সম্মেলনকালে উপস্থিত ছিলেন, রাজনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মওলা লুকু, ফতেহপুর ইউনিযন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আবুল হোসেন, সহ- সভাপতি ফযর আলীসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

এদিকে জেলা আওয়ামী লীগের অব্যাহতির সিদ্ধান্ত সম্পর্কে মৌলভীবাজারের জেলা আওযামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মিসবাউর রহমান জানান, কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত কেবল তাকে অবগত করা হয়েছে। এতে জেলার কোন সিদ্ধান্ত নেই।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *