- ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, স্লাইডার

কুলাউড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আনোয়ারের স্বজনদের মধ্যে ভূল বুঝাবুঝির অবসান

এইবেলা, মৌলভীবাজার, ২৪ অক্টোবর ::

মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো:আনোয়ারের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ আত্মীয়-স্বজনদের মধ্যে ভূল বুঝাবুঝি। ২৪ অক্টোবর সকালে মৌলভীবাজার আর এস কায়রান রেস্টুরেন্টে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি পরিস্কার করেন আলেয়া বেগম।

শায়েস্তা মিয়ার সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন তার বড় ভাই আলী আকবর (আনছার), ভগ্নিপতি আব্দুল খালিক, বোন রোকিয়া বেগম, আব্দুল হান্নানসহ আত্মীয়-স্বজনরা।এসময় আলেয়া বেগম লিখিত বক্তব্যে বলেন গত ০৬ অক্টোবর রোববার কুলাউড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আমার আপন ছোট ভাই মো: আনোয়ারের বিরুদ্ধে আমি একটি সংবাদ সম্মেলন করি। ২০১৩ সালে মাননীয়, যুগ্ম জেলা জজ আদালত মৌলভীবাজার এ স্বত্ব (শফি) মোকদ্দমা নং ৩৯/১৩ইং দায়ের করার কারনে আমরা ভাই বোন ও আমার স্বামীসহ স্বজদের মধ্যে ভূল বুঝাবুঝির কারণে আমাদের মধ্যে সম্পর্কের অবণতি ঘটে এবং দুরত্ব তৈরি হয়। এরই প্রেক্ষিতে আমি ক্ষুব্ধ হয়ে সংবাদ সম্মেলন করি।

সংবাদ সম্মেলনে আমার মনের ক্ষোভ থেকে অপ্রয়োজনীয় ও অপ্রাসঙ্গিক মিথ্যা এবং অনভিপ্রেত কিছু বিষয় চলে আসে। আমার সংবাদ সম্মেলনের বিষয়টি জানাজানি হলে আমার অপরাপর আত্মীয় স্বজন ও স্থানীয় কতেক ব্যত্তিবর্গের হস্তক্ষেপে এবং আমাদের মনসুরনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিলন বখত এর উপস্থিতিতে প্রতিবেশী ও আমাদের উভয় পরিবারের ঘনিষ্টজন  এম এ মোহিত ও  শায়েস্তা মিয়া এবং স্থানীয় ইউপি সদস্য বাবু কার্তিক দেবের মধ্যস্থতায় গত ১৮ অক্টোবর শুক্রবার এক সালিশ বৈঠকে বিষয়টি নিস্পত্তি করা হয়েছে। এখন আমাদের মধ্যে আর কোন বিরোধ নাই। ভবিষ্যতে আর যাতে এরকম বিরোধ বা ভূল বুঝাবুঝির ক্ষেত্র তৈরি না হয় এ বিষয়ে আমি-আমরা যত্নবান থাকবো।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *