- জুড়ী, ব্রেকিং নিউজ, স্লাইডার

জুড়ীতে সওজের জমি দখল করে দালান নির্মাণ : কর্তৃপক্ষ নির্বিকার

আব্দুর রব, বড়লেখা, ২৮ অক্টোবর ::

মৌলভীবাজারের জুড়ীতে সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রায় দেড় কোটি টাকার ভুমি দখল করে দালান নির্মাণ করছেন দুই সহোদর ব্যবসায়ী। দ্বিতীয় তলার জবর-দখল পাকাপোক্ত করে এবার তারা তৃতীয় তলার নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। প্রকাশ্যে সরকারী ভুমিতে বিল্ডিং নির্মাণের কাজ চললেও রহস্যজনক কারণে নির্বাক সওজ কর্তৃপক্ষ। এব্যাপারে স্থানীয় এক মুক্তিযোদ্ধা রোববার সড়ক যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী বরাবরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

জানা গেছে, জুড়ী উপজেলা সদরের পোষ্ট অফিস রোড সংলগ্ন জাঙ্গিরাই মৌজার ৫৪৯২ ও ৫৪৯৩ দাগটি সড়ক ও জনপথের রেকর্ডিয় ভুমি। উক্ত ভুমি সংলগ্ন ১.৬০ শতাংশ ভুমি প্রায় ১০ বছর পূর্বে মুহিবুর রহমান নামক এক ব্যক্তির নিকট থেকে ক্রয় করেন মৃত রহমত আলীর ছেলে ব্যবসায়ী লকুজ মিয়া ও রমজান আলী। প্রায় পৌনে দুই শতক ভুমি কিনে সড়ক ও জনপথ বিভাগের দেড় কোটি টাকার ১০ শতাংশ ভুমি জবর দখল করে ইতিমধ্যে তারা বিল্ডিং নির্মাণ করেছে। দ্বিতীয় তলার নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করে বর্তমানে তারা তৃতীয় তলার কাজ করছে। সরকারী মূল্যবান ভুমি দখল করে বিল্ডিং নির্মাণের কাজ চললেও রহস্যজনক কারণে নির্বাক রয়েছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ।

সরেজমিনে গেলে এলাকার লোকজন জানান, পোষ্ট অফিস রোডটি সড়ক ও জনপথ বিভাগের (সওজ)। এ সড়কের উভয় পাশে ব্যাপক সরকারী ভুমি রয়েছে যা ব্যবসা-বাণিজ্যের কেন্দ্রস্থলের হওয়ায় অত্যন্ত মুল্যবান ভুমি। তাই এ ভুমির ওপর প্রভাবশালীদের লুলোপ দুষ্ঠি দীর্ঘদিনের। সরকারী ভুমি সংলগ্ন ১-২ শতাংশ ভুমি ক্রয় করে অনেকেই সরকারী ভুমি জবর দখল করে দোকান পাঠ নির্মাণ করেছেন। এতে সড়কে যানবাহণ চলাচলেরও ব্যাঘাত ঘটছে। লকুজ মিয়া ও রমজান আলী মাত্র দেড় শতাংশ ভুমি কিনে ওই ভুমির সামনের ১০ শতাংশের অধিক সরকারী ভুমিতে বিল্ডিং নির্মাণ করলো। এখন তৃতীয় তলার কাজ করছে, এগুলো কি সড়ক ও জনপথ বিভাগের কোন কর্মকর্তার চোঁখে পড়ে না। বাস্তবেও ১০ শতকের অধিক ভুমিতে বিল্ডিং নির্মাণ করতে দেখা গেছে।

সওজের ভুমিতে বিল্ডিং নির্মাণকারী ব্যবসায়ী লকুজ মিয়া ও রমজান আলী জানান, তারা ১০ বছর আগে মুহিবুর রহমানের নিকট থেকে দুই শতাংশ ভুমি ক্রয় করে বিল্ডিং নির্মাণ করেছেন। বর্তমানে তৃতীয় তলার কাজ করছেন। ভুমির দাগ, খতিয়ান কোন কিছুই বলতে পারবেন না।

সড়ক ও জনপথ বিভাগের সেকশন অফিসার (এসও) শহদেব সুত্রধর জানান, তিনি এ সেকশনে নতুন যোগদান করেছেন। এব্যাপারে কোন কিছুই তার জানা নেই। বিষয়টি তিনি খোঁজ নিয়ে দেখবেন।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *