- কমলগঞ্জ, ব্রেকিং নিউজ, স্লাইডার

কমলগঞ্জে বিশেষ অভিযানে পিতা-পুত্র আটক

এইবেলা, কমলগঞ্জ, ১২ নভেম্বর ::

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে পুলিশের বিশেষ অভিযানে দীর্ঘদিন ধরে ডাকাতি মামলায় (মামলা নং- ১৪, তারিখ  ১৯/১২/২০১২) পলাতক আসামী কমলগঞ্জ উপজেলার মুন্সিবাজার ইউনিয়নের পরানধর গ্রামের জালাল মিয়ার পুত্র আয়মন হোসেন ইমন (২৪) আটক করেছে পুলিশ। কমলগঞ্জ থানার এস আই চম্পক দাম ও এস আই ফয়েজ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে বিশেষ অভিযান চালিয়ে কুলাউড়া উপজেলার হাজিপুর ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামে তার বোনের বাড়ী থেকে রাত অনুমান দেড়টার দিকে আটক করা হয়। আটক আয়মন হোসেন ইমনকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, গত ২০১২ সালে ১৯ ডিসেম্বর সিলেটের দক্ষিন সুরমা থানার ডাঃ তাহমিনা খালেক এর বসতবাড়ীতে অজ্ঞাতনামা একদল ডাকাতদল রামদা, ডেগার, দুইনলা বন্দুক, রিভলবারসহ অস্ত্রশস্ত্র দ্বারা জিম্মি করে নগদ টাকা, স্বর্ণের গয়না ও মোবাইলসহ মূল্যবান জিনিসপত্র ডাকাতি করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ডাঃ তাহমিনা খালেক বাদী অজ্ঞাতনামা ডাকাতদলকে আসামী করে দক্ষিণ সুরমা ধানায় মামলা দায়ের করেন। অপরদিকে সিলেট মেট্রোপলিটন আদালতে (মামলা নং- ১১৫৭/১৯ইং) প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ ও প্রতারণা মামলায় (ডাকাতি মামলায় পলাতক আসামী আয়মন হোসেন ইমন এর পিতা) মৃত চান মিয়ার পুত্র জলাল মিয়া (৫২) কে আটক করছে পুলিশ। কমলগঞ্জ থানার এস আই উত্তম কুমারের নেতৃত্বে সংগীয় ফোর্স সাথে নিয়ে জালাল মিয়ার মুন্সিবাজারস্থ ব্যবসা প্রতিষ্টান থেকে তাকে আটক করা হয়। জালাল মিয়াকে একই ভাবে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়. প্রতারণা ও জালিয়াতির অভিযোগে জালাল মিয়ার পুত্র শিবির কর্মী সোহেল রানা সুমন গত ৯ সেপ্টেম্বর সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে আটক হন। বেশ কিছু দিন হাজতে থাকার পর জালাল মিয়া লিখিত অঙ্গিকারনামা দিয়ে ছেলেকে জেল থেকে বের করে আনেন। এরপর অঙ্গিকারনামার মেয়াদ শেষ হলেও জালাল মিয়া কোন যোগাযোগ না করে বিভিন্ন টালবাহানা শুরু করেন। সিলেট জৈন্তাপুর উপজেলার ধলইপাড়া গ্রামের মৃত এমদাদ আলীর পুত্র আব্দুর রশিদ সিলেট মেট্রোপলিটন আদালতে প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ ও প্রতারণার অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করেন।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *