- কমলগঞ্জ, ব্রেকিং নিউজ, স্লাইডার

কমলগঞ্জে টিলার মাটি ধ্বসে এক মহিলা নিহত

এইবেলা, কমলগঞ্জ, ১৪ নভেম্বর ::

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাদে উবাহাটা গ্রামে উচুঁ টিলা কেটে অবৈধভাবে নির্মিত হচ্ছে বাড়িঘর। কেটে ফেলা একটি টিলার মাটি ধ্বসে এক মহিলার মৃত্যু হয়েছে। গত বুধবার ১৩ নভেম্বর বিকাল ৪টায় টিলার কেটে ফেলা অংশের মাটি ধ্বসে গুরুতর আহত হলে হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসক মহিলার মৃত্যু নিশ্চিত করেন।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, ব্যক্তি মালিকানাধীন একটি টিলা ঘেষে তোলা ঘরের সামনে কেটে ফেলা টিলার পাশে শিশুরা খেলাধুলা করছিল। শিশুদের সরিয়ে আনার সময় টিলার কাটা অংশের মাটি ধ্বসে পড়ে আমেনা বেগম (৫৫) গুরুতর আহত হন। পরে তাকে দ্রুত উদ্ধার করে প্রথমে কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর সেখান থেকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হলে সন্ধ্যায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। নিহত আমেনা বেগম গ্রামের কৃষক মাসুক মিয়ার স্ত্রী। তাদের ৬ সন্তান রয়েছে। মাসুক মিয়া জানান, টিলার কাটা অংশের মাটি ধ্বসে দুর্ঘটনা ঘটেছে। এখানে কারো কোন দোষ নেই। স্ত্রী মারা যাওয়ায় সন্তানরা অসহায় হয়ে পড়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, বাদে উবাহাটা গ্রামের একটি উচুঁ টিলা কেটে একটি বাড়ি তৈরি করা হচ্ছে। কেটে ফেলা টিলার উপরে পাকা দেয়ালের ঘরের কাজ চলছে। ঘরের আশপাশ এলাকায় টিলা কেটে সাবাড় করা হচ্ছে। মোহাম্মদ আলী ও শাহিন মিয়া নামে দুই ব্যক্তি ঘর তৈরি করছেন। তবে ব্যক্তিগত টিলা হলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কোন অনুমতি ছাড়াই অবৈধভাবে টিলা কাটা হচ্ছে বলে স্থানীয়রা জানান। কমলগঞ্জ উপজেলার পাহাড়ি টিলা অধ্যুষিত দুর্গম এলাকায় অসংখ্য স্থানে অবৈধভাবে টিলা কেটে সাবাড় করা হচ্ছে। ফলে পরিবেশ-প্রতিবেশের মারাত্মক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। টিলা কাটার ফলে অনাকাঙ্খিত এই ঘটনায় মহিলার মৃত্যু হয়েছে।

কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের স্থানীয় ইউপি সদস্য আবুল কালাম বলেন, তাদের ব্যক্তিগত টিলার কাটা অংশের মাটি ধ্বসে এ ঘটনা ঘটেছে। তবে এব্যাপারে কারো কোন অভিযোগ নেই।

কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আরিফুর রহমান কেটে ফেলা টিলার মাটি ধ্বসে মহিলার মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর শুনে একজন এসআই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তবে টিলা আগেই কাটা ছিল। কিছু মাটি ধ্বসে মহিলা আহত হন ও পরে মারা যান। এব্যাপারে কাহারো কোন অভিযোগ নেই।

এ ব্যাপারে কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশেকুল হক বলেন, বিষয়টি জানা ছিল না। তবে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কে সরেজমিন তদন্তের জন্য বলবেন বলে জানান।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *