- বড়লেখা, ব্রেকিং নিউজ, স্লাইডার

বড়লেখায় লবণের মূল্য বৃদ্ধির গুজব ঠেকাতে মাঠে পুলিশ

এইবেলা, বড়লেখা, ১৯ নভেম্বর ::

মৌলভীবাজারের বড়লেখায় লবণের দাম বৃদ্ধির গুজব ঠেকাতে মাঠে নেমেছে পুলিশ। গুজবে কান না দিতে এবং জনসচেতনতা বাড়াতে মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) দুপুর থেকে পুলিশের পক্ষ থেকে উপজেলা জুড়ে মাইকিং করা হয়েছে।

জানা গেছে, সোমবার (১৮ নভেম্বর) সকালে বড়লেখায় লবণের দাম বৃদ্ধির গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এ খবরে উপজেলার বিভিন্ন দোকানে লবণ বিক্রির ধুম পড়ে। এ সুযোগ নিয়ে ব্যবসায়ীরা নির্ধারিত দামের চেয়ে দ্বিগুণ ও তিনগুণ বেশি অর্থাৎ ৮০-১০০ টাকা দামে লবণ বিক্রি করেন। খবর পেয়ে সোমবার বিকেলে অভিযানে নামে প্রশাসন। অভিযানের সময় অতিরিক্ত দামে লবণসহ বিভিন্ন পণ্য বিক্রি ও মূল্য তালিকা না টাঙানোর অপরাধে উপজেলার সাতটি দোকান মালিককে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ভ্রাম্যমান আদালতের নেতৃত্ব দেন বড়লেখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী হাকিম মো. শামীম আল ইমরান।

এদিকে লবণ বৃদ্ধির গুজব ঠেকাতে ও জনসচেতনতা বাড়াতে মঙ্গলবার দুপুর থেকে বড়লেখা থানা পুলিশের পক্ষ থেকে বড়লেখা পৌরসভাসহ উপজেলার বর্ণি, সদর, দক্ষিণ শাহবাজপুর, উত্তর শাহবাজপুর, দক্ষিণভাগ উত্তর, দক্ষিণভাগ দক্ষিণ, নিজবাহাদুরপুর, সুজানগর, দাসের বাজার, তালিমপুর ইউনিয়ন এলাকায় মাইকিং করা হচ্ছে।

বড়লেখা হাজীগঞ্জ বাজারের মুদি ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. ছয়দুল ইসলাম জানান, ‘বড়লেখায় লবণের কোনো সংকট নেই। সোমবার সকাল থেকে একটি কুচক্রী মহল লবণের দাম বাড়ার কথা প্রচার করে। এগুজবে সাধারণ মানুষ লবণ কিনতে হুমড়ি খেয়ে পড়ে। আমরা মানুষকে বুঝানোর চেষ্টা করেছি। পৌর মেয়র ও প্রশাসনের সাথে আমরা যোগাযোগ করেছি। ক্রেতা সাধারণকে এইসব গুজবে কান না দেয়ার অনুরোধ করছি। হাজীগঞ্জ বাজারের বিভিন্ন দোকানীর সাথে কথা হয়েছে। কেউ অতিরিক্ত মূল্যে বিক্রি করছে না।’

থানার ওসি মো. ইয়াছিনুল হক জানান, লবণের দামবৃদ্ধির বিষয়টি নিছক গুজব। বাজারে পর্যাপ্ত লবণ আছে। কোনো সংকট নেই। এরপর নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে কেউ যদি বেশি দামে লবণ বিক্রি করেন, তবে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। লবণের দাম বৃদ্ধির গুজব ঠেকাতে এবং জনগণের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে আমরা উপজেলার প্রত্যেকটি ইউনিয়নে ও পৌরসভায় মাইকিং করছি। তিনি গুজবে কান না দিতে সবাইকে আহ্বান জানান।#

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *