- জাতীয়, ব্রেকিং নিউজ, স্লাইডার

ফরিদপরে শিক্ষক কর্মশালা ও শ্রীমদ্ভগবদ্গীতা সম্মেলন

মনিকা সরকার, ফরিদপুর, ০৯ ফেব্রুয়ারি ::

শ্রীধাম শ্রীঅঙ্গন ফরিদপুরে ৩১টি গীতা শিক্ষালয়ের সমন্বয়ে শিক্ষক কর্মশালা ও শ্রীমদ্ভগবদ্গীতা সম্মেলন সম্পন্ন হয়েছে। সম্মেলনে ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, মাগুড়া ও যশোর জেলার গীতা শিক্ষালয়ের প্রতিনিধি ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

সম্মেলনে শ্রীঅঙ্গন গীতা শিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষক শ্রী রমেন্দ্রনাথ মুখার্জী ও প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন শ্রীমৎ কান্তিবন্ধু ব্রহ্মচারী মহারাজ, সভাপতি মহানাম সম্প্রদায়, বাংলাদেশ। প্রধান অতিথি ঘৃত প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভ শুচনা করেন।

প্রধান অতিথি তাঁহার বক্তব্যে বলেন, তিনটি গুনের সমন্বয়ে মানুষ, সত্ত্ব, রজ ও তম । এর মধ্যে রজ ও তম এই দুইটি গুনকে সম্পূর্ন্নরুপে ত্যাগ করতে পারলে মানুষ হতে পারবে। তিনি নিজে প্রশ্ন করেন এবং তিনিই উত্তর প্রদান করেন। তিনি বলেন, গীতা পাঠ করলে আত্ম তৃপ্তি লাভ হয়। সবাইকে গীতা পাঠ করার জন্য তিনি উব্ধুদ্ধ করেন।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন শ্রীমৎ ধ্রুব চৈতন্য, প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি-বাংলাদেশ লোকনাথ গীতা প্রচার সংঘ, শ্রীশ্রী লোকনাথ ব্রহ্মচারী আশ্রম ও মন্দির, ৮৪/১ স্বামীবাগ রোড ঢাকা। শ্রীমৎ ধ্রুব চৈতন্য ভক্তগণকে বলেন, প্রত্যেকে গীতা মুখী হতে হবে এবং অন্যদের গীতা পাঠে আগ্রহী করে তুলতে হবে। তিনি আরো বলেন এই ৫০টি গীতা শিক্ষালয়ে যত গীতার প্রয়োজন হবে সেগুলো বিনামূল্যে বাংলাদেশ লোকনাথ গীতা প্রচার সংঘের পক্ষ হতে প্রদান করা হবে। উপস্থিত ৩১টি গীতা শিক্ষালয়ে বাংলাদেশ লোকনাথ গীতা প্রচার সংঘের পক্ষ হতে ৪০০ (চারশত) টি গীতা বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়।

এছাড়া অন্যন্য সকল অতিথি গীতার উপর, সমাজ গঠন ও মানব কল্যাণের জন্য কাজ করার জন্য জোড়ালো বক্তব্য প্রদান করেন। তাঁরা হলেন শ্রীমৎ কমল কান্তি মহারাজ, উপদেষ্টা- বাংলাদেশ লোকনাথ গীতা প্রচার সংঘ, প্রফেসর শীলা রানী মন্ডল, অধ্যক্ষ-সরকারি ইয়াছিন কলেজ-ফরিদপুর, প্রফেসর গোবিন্দ চন্দ্র বিশ্বাস-সাবেক অধ্যক্ষ, সরকারি ইয়াছিন কলেজ, ফরিদপুর। শ্রীমৎ মানস বন্ধু বহ্মচারী-শ্রীধাম শ্রীঅঙ্গন, ফরিদপুর, অরুন মন্ডল, সদস্য- বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন পরিষদ, কেন্দ্রীয় কমিটি। শ্রী সুদেব বড়াল, যুগ্ন সদস্য সচিব-বাংলাদেশ লোকনাথ গীতা প্রচার সংঘ। বিকাশ কুমার পাল, পরিচালক, “আমরাই হব কালের খেয়া-২০১০”।

অনুষ্ঠানে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তত্ত্বাবধাক শ্রীমৎ বন্ধুকিশোর দাস। তিনি বিশেষ ভাবে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন শ্রী রঞ্জিত রায় মহোদয়কে তাঁর সহজ পাঠ্য বড় ৫০টি শ্রীমদ্ভগবদ্গীতা গ্রন্থ দিয়ে সহয়তা করার জন্য। এছাড়া প্রতিটি গীতা শিক্ষালয়ের ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক মন্ডলী, পরিচালকসহ সম্মানিত অতিথি বর্গের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন ও সাধুবাদ জানান।

অনুষ্ঠানটি গীতা শিক্ষালয়ের প্রাণের মানুষ শ্রী জয় বিশ্বাস ও শ্রীমৎ বন্ধুব্রত ব্রহ্মচারী শিক্ষক, শ্রীঅঙ্গন গীতা শিক্ষা কেন্দ্র অত্যান্ত সুন্দরভাবে সঞ্চালনা ও পরিচালনা করেন।

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *