- মৌলভীবাজার

কুলাউড়ায় প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম চলছে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে

এইবেলা, কুলাউড়া ২৪ এপ্রিল :
জনবল সংকটের কারণে বিপর্যয়ের মুখে কুলাউড়া উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা। একদিকে শিক্ষা অফিসে লোকবল সংকটের কারণে কর্মকর্তারা অফিসের কাজকর্ম শেষ করে বিদ্যালয়গুলো ঠিকমতো তদারকি করতে পারছেন না, অন্যদিকে বিভিন্ন বিদ্যালয়ে শিক্ষক সংকটের কারণে ব্যাহত হচ্ছে পাঠদান। শিক্ষা অফিসের ১৭টি পদের মধ্যে ১২টি পদই শূন্য। সেই সঙ্গে ১৯০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক, সহকারী শিক্ষক ও দফতরি কাম প্রহরী পদে রয়েছে লোকবল সংকট। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কর্মরত থাকলেও সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তার ৯টি পদের মধ্যে ৭টি শূন্য। কর্মরত দুজন সহকারী শিক্ষা অফিসারের পক্ষে ১৯০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তদারকি করা দুষ্কর। উচ্চমান সহকারী ১টি পদ থাকলেও দীর্ঘদিন থেকে সেই পদটি শূন্য রয়েছে। অফিস সহকারী ৪টি পদের মধ্যে কর্মরত আছেন ১ জন, হিসাব সহকারী হিসেবে ১ জন কর্মরত রয়েছেন। দাফতরিক কাজে একমাত্র অফিস সহকারীকেই ছুটতে হয় পিয়নের দায়িত্ব নিয়ে।

এদিকে উপজেলার ১৯০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে ৫৭টিতেই নেই কোনো প্রধান শিক্ষক। সহকারী শিক্ষক ৮৩৭টি পদ থাকলেও শূন্য রয়েছে ১০৫টি পদ, দফতরি কাম প্রহরীর ১৩৩টি পদ থাকলেও ৫০টি বিদ্যালয়ে নেই কোনো দফতরি কাম প্রহরী। অপরদিকে প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের কর্মকর্তাদের বিভিন্ন স্কুল পরিদর্শনের জন্য দুটি মোটরসাইকেল বরাদ্দ থাকলেও ১টি দীর্ঘদিন থেকে অকেজো হয়ে পড়ে রয়েছে। ফলে শিক্ষা কর্মকর্তাদের স্কুল পরিদর্শনে যেতে দুর্ভোগের শিকার হতে হয়। এ ব্যাপারে প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শরিফ উল ইসলাম জানান, জনবল সংকটের কারণে প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। শিক্ষার গুণগত মান নিশ্চিত করা সম্ভব হচ্ছে না।#
রিপোর্ট- আব্দুল আহাদ

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *