- কৃষি, জাতীয়, নির্বাচিত, ব্রেকিং নিউজ, মৌলভীবাজার, স্থানীয়, স্লাইডার

রাজনগরে পাহাড়ি ঢলে ভেসে গেছে ৩ কোটি টাকার প্রকল্প

এইবেলা, রাজনগর, ৩১ মে  ::মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার উত্তরভাগ ইউনিয়নে গত কয়েকদিনের প্রবল বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে বিনষ্ট হয়েছে কৃষিপ্রকল্প। জাপানি সংস্থা জাইকার অর্থায়নে ৩ কোটি ৭ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত প্রকল্পের মাটিতে মারাত্মক ধ্বস নামায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। ওই প্রকল্পের আওতায় এ ইউনিয়নে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার একর জমি কৃষির আওতায় আনা হয়েছিল ।

JICA-Uttorvag
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, জাপান ইন্টারন্যাশনাল কর্পোরেশন এজেন্সি ‘জাইকা’র অর্থায়নে ৩ কোটি ৭ লাখ টাকা ব্যয়ে উত্তরভাগ ইউনিয়নের ধামাইছড়ায় দু’টি স্লুইচগেইট স্থাপন করা হয়েছে। ‘ক্ষুদ্রাকার পানি সম্পদ উন্নয় প্রকল্প’র মাধ্যমে ওই ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল ও হাওর এলাকার ভুরভুরির বিল, ফাটাবিল, পশ্চিম চানভাগ, পূর্ব-চানভাগ, বড়দল, উত্তরভাগ, হায়পুর গ্রাম এলাকার সাড়ে ৩ হাজার একর জমি কৃষির আওতায় আনা হয়েছিল। ২০১৪ সালে এ শুরু হয়ে গত ডিসেম্বর মাসে শেষ হয়েছে। এ বছর ওই প্রকল্পে আওতায় বেশ জমি চাষ করা হয়েছিল। কিন্তু গত কয়েকদিনের অস্বাভাবিক প্রবল বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে ওই প্রকল্পের জন্য নির্মিত স্লুইচ গেটের উভয় পাশের টিলায় ধ্বস ও মাটি সড়ে গেছে। এছাড়াও এধরণের আরো বৃষ্টিপাত হলে অত্যধিক পানি প্রবাহের কারনে আরো ভাঙন দেখা দিতে পারে বলে স্ংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

JICA-Uttorvag1

এতে ওই প্রকল্পের মূল স্লুইচ গেটগুলো ধ্বসে পড়ার উপক্রম হলে এর থেকে কৃষকের উপকার না হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এ প্রকল্পের জরুরী ভিত্তিতে মাটি ভরাট করা ও বাঁধ না দেয়া হলে আরো ভাঙনের মুখে পড়বে এবং সামেনর মৌসুমে কৃষি আবাদের সম্ভাবনা ভেস্তে যাবে। এছাড়াও ওই ইউনিয়নের উত্তরভাগ চা বাগান ও চানভাগ চা বাগান সড়কের প্রায় ১৫০ ফুট পাকা সড়ক পাহাড়ি ঢলের তুড়ে ভেসে গেছে। দেবে গেছে আরো ৫০ ফুটের মতো সড়ক। এতে ওই সড়কগুলোতে সাধারণ মানুষের চলাচলে ভোগান্তি হচ্ছে। এব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে উপজেলা প্রকৌশল অধিদফতর।

রাজনগর উপজেলা প্রকৌশলী মোহাম্মদ রুবাইয়্যাত জামান বলেন, ভারি বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে জাইকার অর্থায়নে ধামেশ্বরি ক্ষুদ্র পানি সম্পদ ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের বেশ ক্ষতি হয়েছে। পানির প্রবল স্রোতে দুইটি স্লুইচ গেট ও দুটি চা বাগানের সড়ক এবং একটি সেতুর উভয় পাশের মাটি সড়ে গিয়ে ঝুঁকির সৃষ্টি হয়েছে। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার ও ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। #

রিপোর্ট- বিশেষ প্রতিনিধি

About eibeleamialabula

Read All Posts By eibeleamialabula

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *