মে ১৪, ২০১৭
Home » ব্রেকিং নিউজ » প্রাণনাশের হুমকিতে ৫ বছর ধরে উধাও জুড়ীর যুবদল নেতা সোহেল

প্রাণনাশের হুমকিতে ৫ বছর ধরে উধাও জুড়ীর যুবদল নেতা সোহেল

এইবেলা, বড়লেখা, ১৮ মে:: মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলা যুবদল নেতা সোহেল আহমদ প্রাণনাশের হুমকিতে প্রায় ৫ বছর ধরে এলাকা ছাড়া। তিনি উপজেলার পশ্চিম জুড়ী ইউনিয়নের পূর্ব হরিরামপুর গ্রামের মৃত রফিক মিয়া ও মৃত আফিয়া বেগমের ছেলে।

এলাকাবাসী ও পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, বিএনপির রাজনীতিতে সম্পৃক্ত সোহেল আহমদের বাবা-মায়ের আদি নিবাস বিয়ানীবাজারের আরেঙ্গাবাদ মাতিউরা গ্রাম। ২০০০ সালে জুড়ী উপজেলায় স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করে সোহেলের পরিবার। জাতীয়তাবাদী রাজনীতির সাথে জড়িত থাকায় ২০১১ সালে সন্ত্রাসীরা জোরপুর্বক তাদের বাড়িঘর দখল করে নেয়। বিভিন্ন মামলা-হামলায় জড়িয়ে ফেললে এবং প্রাণনাশের হুমকিতে যুবদল নেতা সোহেল আহমদ এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যান। ২০১১ সালে ৮ জানুয়ারী মা আফিয়া বেগমের মৃত্যুতে বাড়িতে গেলে চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা সোহেলের ওপর হামলা চালায়। বাবা রফিক মিয়া বিয়ানীবাজারে এক আত্মীয়ের বাড়িতে আশ্রয় নেন। ২০১২ সালের শেষ দিকে তিনিও মারা যান। এরপর থেকে যুবদল নেতা সোহেল আহমদের আর কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি।

জুড়ী উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক হারিছ মোহাম্মদ জানান, পশ্চিম জুড়ী ইউনিয়ন যুবদল নেতা সোহেল আহমদ সরকার বিরোধী বিভিন্ন মিছিল মিটিংয়ে সক্রিয় ছিলেন। এজন্য তাকে বিভিন্ন হামলা-মামলায় জড়ানো হয়। সন্ত্রাসীরা বাড়ীঘর দখল করায় ও প্রাণনাশের হুমকি দেয়ায় দীর্ঘদিন ধরে তিনি পলাতক রয়েছেন।